ভেজানো কিশমিশ খাওয়ার স্বাস্থ্য উপকারিতা - Breaking Bangla |breakingbangla.com | Only breaking | Breaking Bengali News Portal From Kolkata |

Breaking

Post Top Ad

Wednesday, 12 January 2022

ভেজানো কিশমিশ খাওয়ার স্বাস্থ্য উপকারিতা



মানুষ নিজেকে সুস্থ রাখতে বিভিন্ন পদ্ধতি অবলম্বন করে। বর্তমান সময়ে ভারসাম্যহীন খাদ্যাভ্যাস ও জীবনযাত্রার কারণে মানুষের মধ্যে পুষ্টির অভাব দেখা দিয়েছে। যার কারণে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার উপর অনেক প্রভাব পড়ে এবং রোগগুলি দ্রুত গ্রাস করে। কিন্তু দৈনন্দিন জীবনে খাদ্যতালিকায় পুষ্টিসমৃদ্ধ জিনিস অন্তর্ভুক্ত করে সুস্থ থাকা যায়। শুকনো ফলও আপনাকে সুস্থ রাখে। এমন খাবারের মধ্যে রয়েছে কিশমিশ। এই শুকনো ফল আপনার স্বাস্থ্যের জন্য খুব উপকারী বলে মনে করা হয়। খির, হালুয়া, পুলাওর মতো অনেক খাবারে কিশমিশের ব্যবহার তাদের স্বাদ আরও বাড়িয়ে দেয়।

তবে আমরা আপনাকে বলি যে খাবারে ব্যবহার করা ছাড়াও ভেজানো কিশমিশ খাওয়া আপনার স্বাস্থ্যের জন্য অনেক উপকারী হতে পারে। কিশমিশ ভিজিয়ে খেলে এতে চিনির পরিমাণ কমে যায় এবং এর পুষ্টিগুণ বৃদ্ধি পায়। এর জন্য একটি পাত্রে ১০-১২ টি কিসমিস সারারাত পানিতে ভিজিয়ে রাখুন এবং সকালে ছেঁকে নিয়ে এই জল পান করুন। এছাড়াও বাকি কিসমিস ভালো করে চিবিয়ে খেয়ে নিন। ক্যালসিয়াম আয়রন ফাইবার পটাসিয়াম ম্যাগনেসিয়ামের মতো পুষ্টি উপাদান রাতারাতি পানিতে ভিজিয়ে রাখা কিশমিশে থাকে। তাহলে চলুন জেনে নিই ভেজানো কিশমিশ খাওয়ার স্বাস্থ্য উপকারিতা সম্পর্কে।

১। বৃদ্ধি: অনাক্রম্যতা সুস্থ থাকতে এবং রোগ এড়াতে হলে আরও ভালো রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা থাকা প্রয়োজন। এমন পরিস্থিতিতে ভেজানো কিশমিশের পুষ্টিগুণ আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে পারে। এছাড়াও এর ব্যবহার আপনাকে ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করতে সহায়তা করতে পারে।

২। শারীরিক দুর্বলতা দূর করুন: গৃহস্থালির কাজ ও জীবনের ব্যস্ততার কারণে অনেক সময় নারীরা নিজেদের ঠিকমতো যত্ন নিতে পারেন না। যার কারণে ধীরে ধীরে তাদের মধ্যে রক্তশূন্যতা ও শারীরিক দুর্বলতা দেখা দেয়। এমন পরিস্থিতিতে ভেজানো কিশমিশ খাওয়া তাদের সঠিক ওজন পেতে এবং শারীরিক দুর্বলতা দূর করার একটি ভাল উপায় হতে পারে। এছাড়া ভিজিয়ে রাখা কিশমিশে পাওয়া গ্লুকোজ এবং ফ্রুক্টোজও নারীদের শক্তিমান রাখতে সহায়ক।

৩। রক্তচাপ ঠিক রাখতে: ভিজিয়ে কিশমিশ খাওয়ার উপকারিতা দেখা যায় রক্তচাপের সমস্যা দূর করার পাশাপাশি রক্তচাপের মাত্রা ঠিক রাখতে। তাই যাদের উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা রয়েছে তাদেরও ভিজিয়ে রাখা কিশমিশ খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়, কারণ এতে পর্যাপ্ত পরিমাণে সোডিয়াম থাকে যা উচ্চ রক্তচাপের ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad