রাতে এলাচ দুধ পানের উপকারিতা - Breaking Bangla |breakingbangla.com | Only breaking | Breaking Bengali News Portal From Kolkata |

Breaking

Post Top Ad

Friday, 29 July 2022

রাতে এলাচ দুধ পানের উপকারিতা



এলাচ পুষ্টিগুণে ভরপুর। মাউথ ফ্রেশনার হিসেবে বেশিরভাগ মানুষই এলাচ ব্যবহার করেন। এছাড়া চায়ের স্বাদ ও গন্ধ বাড়াতেও এলাচ ব্যবহার করা হয়।কিন্তু আপনি কি জানেন দুধে এলাচ মিশিয়ে পান করাও আপনার জন্য খুবই উপকারী হতে পারে। আপনি যদি রাতে ঘুমানোর আগে এলাচের দুধ পান করেন তাহলে এর থেকে অনেক উপকার পাওয়া যায়। দুধে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম থাকলেও এলাচ সঠিক হজমশক্তি বজায় রাখতে সাহায্য করে।

হজমশক্তি সুস্থ রাখে:
এলাচের দুধ যেমন আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য ভালো, তেমনি এটি আমাদের পরিপাকতন্ত্রকে শক্তিশালী করতেও কাজ করে। ঘুমানোর আগে এলাচের দুধ পান করলে সকালে পেট ভালোভাবে পরিষ্কার হয়, তাই এটি কোষ্ঠকাঠিন্যের রোগীদের জন্য খুবই উপকারী। অ্যাসিডিটি কমাতেও এলাচ খুবই সহায়ক। বদহজম, পেট ফাঁপা ইত্যাদি সমস্যাও দূর হয় এলাচের দুধ খেলে।

ঠান্ডা কাশি উপশম:
এলাচ ঠান্ডা কাশি সমস্যা দূর করে। দুধে এলাচ খেলে ঠান্ডা লাগার মতো সমস্যা দূর হয়। বুকে জমে থাকা কফ দূর করতেও এলাচ সহায়ক। এলাচ যোগ করে দুধের স্বাদও খুব ভালো হয় তাই এটি শিশুদেরও সহজেই দেওয়া যায়।

মুখের আলসারে উপকারী:
মুখে ফোসকা পড়লে খাবার খেতে অনেক অসুবিধা হয়। এক্ষেত্রে এলাচের দুধ খাওয়া মুখের আলসারের জন্য উপকারী হতে পারে। পেট পরিষ্কার না হলে প্রায়ই মুখে ফোসকা হয়, তাই রাতে এলাচের দুধ পান করলে পেট পরিষ্কার থাকে। ফোস্কা পড়লে এলাচের দুধ পান করলে ফোসকা সেরে যায়।

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখুন:
এলাচ দুধ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সহায়ক। সুস্থ থাকার জন্য রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করা খুবই জরুরি। এমন পরিস্থিতিতে রাতে এলাচের দুধ খেলে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। প্রতিনিয়ত রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণের বাইরে থাকলে নানা রোগের আশঙ্কা থাকে।

হাড় মজবুত রাখা:
একটি সুস্থ শরীরের জন্য শক্তিশালী হাড় অপরিহার্য। দুধ এবং এলাচ উভয়েই প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম পাওয়া যায়, যা হাড়কে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। আপনি সহজেই শিশু এবং বৃদ্ধদের এই দুধ দিতে পারেন।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad