ছুটি কাটানোর সেরা গন্তব্য এটি - Breaking Bangla |breakingbangla.com | Only breaking | Breaking Bengali News Portal From Kolkata |

Breaking

Post Top Ad

Sunday, 26 December 2021

ছুটি কাটানোর সেরা গন্তব্য এটি



উত্তরাখণ্ড উত্তর ভারতের একটি খুব সুন্দর এবং শান্তিপূর্ণ পর্যটন কেন্দ্র। উত্তরাখণ্ড, 'দেবতাদের ল্যান্ড' হিসাবে পরিচিত, এর শান্ত পরিবেশ, মন্ত্রমুগ্ধকর দৃশ্য এবং সৌন্দর্যের কারণে পৃথিবীতে স্বর্গ হিসাবে বিবেচিত হয়।



কাউসানী - কাউসানী গরুড় তহসিলের কুমাও বিভাগের বাগেশ্বর জেলার একটি গ্রাম। এই সুন্দর হিল স্টেশনটি ইউরোপের চেয়ে কম নয়। কাউসানী আলমোড়া জেলা থেকে ৫৩ কিলোমিটার দূরে বাগেশ্বর জেলায় অবস্থিত। কাউসানী পিংনাথ শিখরে অবস্থিত এবং এখান থেকে হিমালয়ের খুব সুন্দর দৃশ্য দেখা যায়। বরফে ঢাকা নন্দা দেবী পর্বতশৃঙ্গটির দৃশ্য দেখার মতো। কোসি এবং গোমতী দুটি নদীর মাঝখানে অবস্থিত কাউসানিকে ভারতের সুইজারল্যান্ড বলা হয়।


পাহাড়ের রানী -ভারতের উত্তরাখণ্ড রাজ্যের মুসুরি শহর পাহাড়ের রানী হিসাবে খুব বিখ্যাত। দেরাদুন থেকে ৩৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত, মুসুরি এমন এক স্থান যেখানে লোকেরা বারবার দেখা করে। এটি দেখার জন্য অন্যতম প্রধান জায়গা। এই হিল স্টেশন হিমালয় পর্বতমালার শিবালিক পরিসরে পড়ে যা পাহাড়ের রানী হিসাবেও পরিচিত। রাণীখেত উত্তরাখণ্ডের একটি প্রধান পাহাড়ি পর্যটন কেন্দ্র এটি আলমোড়া জেলার অন্তর্গত একটি সামরিক সেনানিবাস। রানীখেত একটি খুব আশ্চর্য হিল স্টেশন এবং এর চারপাশে ওক গাছ রয়েছে। রাণীখেত থেকে তুষার ঢাকা মধ্য হিমালয় পর্বতমালা পরিষ্কারভাবে দৃশ্যমান। প্রাকৃতিক শান্তি অভিজ্ঞ এই পার্বত্য শহরে। এখানে গল্ফ গ্রাউন্ড থাকার কারণে গল্ফ প্রেমীদের পক্ষে এই জায়গাটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।


ভারতের শীতলতম শহর; যেখানে তাপমাত্রা - ৬০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে যায়


ধনলতী - ধনলতী মুসুরি থেকে প্রায় ৩০ কিলোমিটার দূরে এবং একটি শান্ত এবং খুব সুন্দর জায়গা। দেওডার বনকে ঘিরে থাকার কারণে দেওদার বনটি তার পরিচয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। ধনুলতী শহরের তাড়াহুড়ো থেকে দূরে একটি আদর্শ জায়গা। শান্তিপূর্ণ জায়গা হওয়ায় এখানে পর্যটকদের সংখ্যা বেশ বেশি আপনি যদি শীতকালে তুষারপাত উপভোগ করতে চান তবে অবশ্যই এখানে যান।


ল্যানসডাউন - ল্যানসডাউন পাউড়ি গড়ওয়াল জেলার একটি সেনানিবাস শহর এবং এটি একটি খুব সুন্দর হিল স্টেশন। সব জায়গাতেই সবুজ ছড়িয়ে পড়ে মন্ত্রমুগ্ধকর। সারা বছর আবহাওয়া মনোরম থাকে। প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরপুর এই অঞ্চলে অনেক কিছু দেখার আছে। বরফের শিখর এবং প্যানোরামিক দৃশ্যগুলি এই জায়গা থেকে দেখা যায়। উঠতি সূর্যের দৃশ্য এখান থেকে দেখার মতো।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad