গুপ্তধনের এই গুহা আজও মানুষের কাছে অজানা - Breaking Bangla |breakingbangla.com | Only breaking | Breaking Bengali News Portal From Kolkata |

Breaking

Post Top Ad

Sunday, 17 October 2021

গুপ্তধনের এই গুহা আজও মানুষের কাছে অজানা

 


ভারত বৈচিত্র্যের দেশ। উত্তরে হিমালয় এবং দক্ষিণে কন্যাকুমারী। পশ্চিমে কচ্ছ এবং পূর্বে বঙ্গোপসাগর। এরসঙ্গে এমন অনেক রহস্যময় স্থান রয়েছে যা ধাঁধা হিসেবে রয়ে গেছে।  আজও বিজ্ঞানের জন্য।


এই ধাঁধার মধ্যে একটি হল পাহেলী পুত্র ভান্ডার যা বিহার রাজ্যের রাজগীরে অবস্থিত। বলা হয় যে এই স্থানে স্বর্ণের ভাণ্ডার রয়েছে, যা হরিয়ঙ্কা বংশের প্রতিষ্ঠাতা বিম্বিসারের স্ত্রী লুকিয়ে রেখেছিলেন এবং আজ পর্যন্ত কেউ এই গুপ্তধন খুঁজে বার করতে পারেনি।


 পুত্র ভান্ডার, রাজগীর



এই স্থানটি বিহার রাজ্যের রাজগীরে অবস্থিত।  ইতিহাস অনুসারে, হরিয়ঙ্কা রাজবংশের প্রতিষ্ঠাতা বিম্বিসার সোনা -রূপার খুব পছন্দ করতেন।  এর জন্য তিনি সোনা এবং এর অলংকার সংগ্রহ করতেন।  তার অনেক রাণী ছিল, যাদের মধ্যে একজন বিম্বিসারের পছন্দের সম্পূর্ণ যত্ন নিয়েছিলেন।  যখন অজাতশত্রু তার পিতাকে বন্দী করে কারাগারে রাখেন। তখন বিম্বিসারের স্ত্রী এই পুত্র ভান্ডারটি রাজগীরে নির্মাণ করেছিলেন।  রাজার সংগৃহীত সমস্ত ধন এই গুহায় লুকিয়ে ছিল।  আজ পর্যন্ত এই গুহাটি বিজ্ঞানের কাছে একটি রহস্য হয়ে আছে। এই গুহায় দুটি বড় কক্ষ করা হয়েছিল। সৈন্যরা একটি গুহায় বাস করত। যখন ধন অন্য ঘরে লুকিয়ে ছিল।



 

 এই কক্ষটি একটি বড় পাথরে আবৃত, যা আজ অবধি কেউ খুলতে সক্ষম হয়নি।  এই দরজায় শঙ্খচূলে কিছু লেখা আছে।  এই সম্পর্কে বলা হয় যে যদি কেউ এই লিখাটি পড়তে সফল হয় তবে সে পুত্র ভান্ডার খুলতে পারে।  স্বাধীনতার আগে, ব্রিটিশরা একবার কামান দিয়ে এই দরজাটি উড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছিল, কিন্তু তারা তাতে সাফল্য হয়নি।  তারপর থেকে কেউ দরজা খোলার চেষ্টা করেনি।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad