দেখে নিন আপনার স্লিপ অ্যাপনিয়ার নেই তো - Breaking Bangla |breakingbangla.com | Only breaking | Breaking Bengali News Portal From Kolkata |

Breaking

Post Top Ad

Tuesday, 28 September 2021

দেখে নিন আপনার স্লিপ অ্যাপনিয়ার নেই তো




নিউস ডেস্ক :- মাঝে মধ্যেই রাতে ঘুম ভেঙ্গে যাচ্ছে, সারা দিন মাথা ভারী ভারী লাগছে এবং ক্লান্তি থাকেই সারাক্ষন? তাহলে একে হালকাভাবে নেবেন না একদম ।


সুস্থ থাকার জন্য যেমন স্বাস্থ্যকর খাওয়া দরকার ঠিক তেমনি ভালো ঘুমও অপরিহার্য।  আজকের জীবনযাত্রায়, মানুষের জীবনধারা এতটাই অনিয়মিত হয়ে গেছে যে না খাওয়ার সময় এবং না ঘুমানোর সময় সঠিক।  অনেক মানুষেরই রাতে ভালো ঘুমাতে পারেন না। যে কারণে  পরের দিন মাথা ভারী হয়েছে থাকে। এবং শরীরে ক্লান্তি আসে।


সাধারণত মানুষ এই লক্ষণগুলোকে হালকাভাবে নেয়।  বেশিরভাগ মানুষ মনে করে যে এটি একটি সহজ সমস্যা এবং যদি লাইফস্টাইল ঠিক থাকে তাহলে তা ঠিক হয়ে যাবে।  কিন্তু বিশেষজ্ঞরা পরামর্শ দেন যে এই উপসর্গগুলোকে হালকাভাবে নেওয়া উচিৎ নয়।  অন্তত ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া উচিৎ।

এর কারণ হল এগুলো অবস্ট্রাক্টিভ স্লিপ অ্যাপনিয়ার (ওএসএ) লক্ষণ হতে পারে।


 'ডেন্টাল স্লিপ মেডিসিন' বিষয়ক একটি কনফারেন্সের সময় বলা হয়েছে যে আমাদের দেশে প্রায় ৪ মিলিয়ন মানুষ অবস্ট্রাক্টিভ স্লিপ অ্যাপনিয়া (ওএসএ) সিনড্রোমে ভুগছে।  বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বিশেষ করে স্থূলকায় মানুষ এবং বয়স্করা এর শিকার।  শ্বাসকষ্টের কারণে রাতে ঘন ঘন ঘুম না হওয়া এই গুরুতর রোগের ইঙ্গিত দেয়।



 স্লিপ অ্যাপনিয়ার:-


 স্লিপ অ্যাপনিয়া মানে এমন একটি রোগ যাতে রোগী ঘুমানোর সময় হঠাৎ শ্বাস বন্ধ করে এবং হঠাৎ জেগে ওঠে।  তিনি একটি ঝাঁকুনি দিয়ে উঠে বসেন বা অস্থির হয়ে যান।  এর জটিলতা হল এটি একটি ঘুম-সংক্রান্ত রোগ, যার মধ্যে অধিকাংশ রোগীই এ সম্পর্কে সচেতন নয়।


 যেমন একজন স্নোয়ার তার ঘুমের মধ্যে জানে না যে সে নাক ডাকছে, ঠিক একইভাবে স্লিপ অ্যাপনিয়ার একজন রোগীও জানে না যে, সে ঘুমানোর সময় শ্বাস বন্ধ করে দিয়েছে।  কখনও কখনও ঘুমের মধ্যে শ্বাসকষ্টের সমস্যা কয়েক সেকেন্ড থেকে কয়েক মিনিট পর্যন্ত স্থায়ী হতে পারে।



 দাঁতের চিকিৎসার মাধ্যমেও এই রোগের চিকিৎসা সম্ভব :-


 একটি সিপিএপি মেশিন অর্থাৎ কন্টিনিউয়াস পজিটিভ এয়ারওয়ে প্রেসার মেশিন দিয়ে শ্বাস -প্রশ্বাসের থেরাপির মাধ্যমে এই রোগের চিকিৎসা করা হয়।   ডয়চে ভেলে দন্ত বিশেষজ্ঞদের উদ্ধৃতি দিয়ে বলেছেন যে, এই অবস্থাটি ম্যান্ডিবুলার অ্যাডভান্সমেন্ট ডিভাইসের মাধ্যমে চিকিৎসা করা যেতে পারে।  এতে চোয়াল এবং জিহ্বা সাময়িকভাবে সামনের দিকে অগ্রসর হয়।  একই সময়ে, এটি গলার শক্ত হওয়া কমায় এবং শ্বাসনালীর স্থান বাড়ায়।



 লখনৌতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অফিসের ডা. অঙ্কুরের মতে, "প্রায় ৮০ শতাংশ রোগী জানেন না যে তারা ওএসএ -তে ভুগছেন। এবং এটি মারাত্মক হতে পারে।  তাই মানুষের উচিৎ  এটি সম্পর্কে মৌলিক জ্ঞান থাকা। "  মানুষ নাক ডাকাকে স্বাভাবিক মনে করে।  কিন্তু যদি সময়মতো নাক ডাকার চিকিৎসা না করা হয়, তাহলে এটি স্লিপ অ্যাপনিয়া রোগে পরিণত হতে পারে।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad