কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে ওট মিল্কের উপকারিতা - Breaking Bangla |breakingbangla.com | Only breaking | Breaking Bengali News Portal From Kolkata |

Breaking

Post Top Ad

Saturday, 3 September 2022

কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে ওট মিল্কের উপকারিতা



ভুল খাবার খারাপ রুটিন এবং মানসিক চাপের কারণে অনেক রোগ হয়। বিশেষ করে ভুল খাওয়ার ফলে কোলেস্টেরল চিনি ও চর্বি বাড়তে থাকে। এরফলে হৃদরোগ স্থূলতা এবং ডায়াবেটিস বাড়ে। হার্টকে সুস্থ রাখতে খাবারের প্রতি কড়া নজর রাখতে হবে। ভুল খাওয়ার কারণে কোলেস্টেরল বেড়ে যায়। এ কারণে শরীরে রক্ত ​​চলাচল ঠিকমতো হতে পারে না। একই সঙ্গে শরীরে অক্সিজেনের অভাবও হয়। এই অবস্থা হার্ট অ্যাটাক এবং স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়ায়। এ জন্য খাদ্যাভ্যাসের উন্নতি ঘটিয়ে ক্রমবর্ধমান কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণ করা প্রয়োজন। 

আপনিও যদি কোলেস্টেরল বেড়ে যাওয়ায় সমস্যায় পড়ে থাকেন তাহলে অবশ্যই প্রতিদিন ওট মিল্ক খান। এই দুধ খেলে কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে থাকে। সেই সঙ্গে খারাপ কোলেস্টেরলও কমে। ওট মিল্ক পান করলে কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে থাকে বলে অনেক ধরনের গবেষণায় উঠে এসেছে। আসুন জেনে নেই এ সম্পর্কে সবকিছু

রিসার্চ গেটে প্রকাশিত গবেষণায় দাবি করা হয়েছে প্রতিদিন ওট মিল্ক পান করলে খারাপ কোলেস্টেরল কমে। এতে ডায়েটারি ফাইবার পাওয়া যায় যা খারাপ কোলেস্টেরল কমায়। এ জন্য গবেষণায় জড়িত ব্যক্তিদের প্রতিদিন ওট মিল্ক পান করার পরামর্শ দেওয়া হয়। ফলাফল সন্তোষজনক ছিল। এই গবেষণায় দেখা গেছে যে খারাপ কোলেস্টেরল কমাতে ওট মিল্ক খাওয়া যেতে পারে।

ওট মিল্কের উপকারিতা

ওট মিল্কে দ্রবণীয় ফাইবার রয়েছে। এটি খারাপ কোলেস্টেরল কমায়। শরীরে খারাপ কোলেস্টেরল কম থাকলে হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকিও কমে যায়। সহজ কথায় ওট মিল্ক পান করলে হৃদরোগের ঝুঁকিও কমে।

এতে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম ও ভিটামিন ডি পাওয়া যায়। এতে হাড় মজবুত হয়। এর জন্য প্রতিদিন ওট মিল্ক খান। সেই সঙ্গে ওট মিল্কেও ভিটামিন বি পাওয়া যায়।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad