জগনমোহনকে টার্গেট করায় জরিমানা দিচ্ছেন সোনিয়া! - Breaking Bangla |breakingbangla.com | Only breaking | Breaking Bengali News Portal From Kolkata |

Breaking

Post Top Ad

Friday, 22 July 2022

জগনমোহনকে টার্গেট করায় জরিমানা দিচ্ছেন সোনিয়া!



ন্যাশনাল হেরাল্ড কেলেঙ্কারির বিষয়ে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট কর্তৃপক্ষের দ্বারা অল ইন্ডিয়া কংগ্রেস কমিটির সভাপতি সোনিয়া গান্ধী এবং তার ছেলে রাহুল গান্ধীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা মানুষের মধ্যে এই পরিবারের জন্য কোনও সহানুভূতি তৈরি করেনি।  

সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলিতে গান্ধী পরিবারকে প্রচুর ট্রোলিংয়ের মুখোমুখি হতে হয়। নেটিজেনরা মনে করে যে কীভাবে সোনিয়া এবং রাহুল তাদের নিজেদের দুর্নীতিবাজ সহকর্মীদের রক্ষা করার সময় ইউনাইটেড প্রগ্রেসিভ অ্যালায়েন্স শাসনামলে তাদের রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বীদের জাদুকরী শিকারে লিপ্ত হয়েছিল।

এই জাদুকরী শিকারের উৎকৃষ্ট উদাহরণ ছিলেন ওয়াইএসআর কংগ্রেস পার্টির সভাপতি এবং বর্তমান অন্ধ্র প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী ওয়াই এস জগন মোহন রেড্ডি। তিনি সোনিয়ার নির্দেশকে অমান্য করেছিলেন এবং তাঁর ওদারপু যাত্রার সঙ্গে এগিয়ে গিয়েছিলেন বলেই তিনি কংগ্রে


স থেকে বেরিয়ে এসে নিজের দল গঠন করতে বাধ্য হন। এবং কিছুক্ষণের মধ্যেই তৎকালীন কংগ্রেস সরকার তার বিরুদ্ধে সিবিআই এবং ইডি মামলাগুলিকে কথিত কুইড প্রো কো এবং মানি লন্ডারিংয়ের অভিযোগে নথিভুক্ত করে। জগনকে ১৬ মাস কারাগারে থাকতে হয়েছিল।

গত আট বছরে পরিস্থিতি সম্পূর্ণ বদলে গেছে। জগান যখন দৃঢ়ভাবে লড়াই করেছিলেন এবং বিশাল জনসাধারণের ম্যান্ডেট নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী হন তখন সোনিয়া এবং রাহুলের জনপ্রিয়তার গ্রাফটি নাক ডাকা হয়েছিল এবং তাদের নেতৃত্বে কংগ্রেস নির্বাচনী পরাজয়ের মুখোমুখি হয়েছিল।

এখন সোনিয়া এবং রাহুল ইউপিএ শাসনামলে জগন এবং অন্যান্য রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বীদের হয়রানির জন্য জরিমানা দিচ্ছেন। একই তদন্ত সংস্থা সিবিআই এবং ইডি, যা সোনিয়া জাগান এবং অন্যদের জাদুকরী শিকার করতে ব্যবহার করেছিল, এখন তাদের একসঙ্গে ঘন্টার পর ঘন্টা গ্রিল করছে। যদিও জগনমোহন জনগণের সহানুভূতি অর্জন করে ক্ষমতায় আসতে পারে। সোনিয়া ও রাহুল জনগণের সহানুভূতি হারিয়েছেন এবং তাদের ক্ষমতায় ফেরার সম্ভাবনা খুবই ক্ষীণ।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad