শ্রীলঙ্কায় পেট্রোল সংকট, কোনও সময় যানবাহনের চাকা থমকে যেতে পারে - Breaking Bangla |breakingbangla.com | Only breaking | Breaking Bengali News Portal From Kolkata |

Breaking

Post Top Ad

Tuesday, 17 May 2022

শ্রীলঙ্কায় পেট্রোল সংকট, কোনও সময় যানবাহনের চাকা থমকে যেতে পারে

 


 শ্রীলঙ্কার পরিস্থিতি এখন আরও খারাপ হয়েছে।  দেশে পেট্রোল ফুরিয়ে গেছে।  বৈদেশিক মুদ্রার সঞ্চয়স্থানও শেষ।  শ্রীলঙ্কার কাছে বিদেশ থেকে তেলের মতো প্রয়োজনীয় জিনিস কেনার মতো পর্যাপ্ত অর্থ অবশিষ্ট নেই।  আজ থেকে অর্থহীন হয়ে পড়বে পেট্রোল পাম্পে যানবাহনের দীর্ঘ সারি।  কারণ পুরো শ্রীলঙ্কায় এক ফোঁটা পেট্রোলও অবশিষ্ট নেই।  বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে নিজেই।


 মানে আজ থেকে শ্রীলঙ্কার গাড়ি থমকে যেতে চলেছে।  শ্রীলঙ্কার বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ শেষ হয়ে গেছে।  অন্যান্য দেশ থেকে পেট্রোল, রান্নার গ্যাস, ওষুধের মতো প্রয়োজনীয় জিনিস কেনার মতো পর্যাপ্ত অর্থ অবশিষ্ট নেই।  ১৫ ঘন্টা বিদ্যুৎ কাটা এবং উচ্চ মূল্যস্ফীতি মানুষের জীবনযাত্রাকে কঠিন করে তুলেছে।


 প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রম সিংহের দেশের ব্যয় চালাতে ২.৪ ট্রিলিয়ন শ্রীলঙ্কা রুপি প্রয়োজন।  যেখানে সরকার প্রাপ্ত রাজস্ব মাত্র ১.৬ ট্রিলিয়ন শ্রীলঙ্কা রুপি।  এর ক্ষতিপূরণ দিতে শ্রীলঙ্কার সম্পত্তি বিক্রির পর্যায়ে চলে এসেছে।  এখন শ্রীলঙ্কা সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে সরকারি বিমান সংস্থাগুলিকে বেসরকারি হাতে তুলে দিতে হবে।


 আমাদের দেশ ৪০০০০০ মেট্রিক টনেরও বেশি ডিজেলের  শ্রীলঙ্কায় সরবরাহ করেছে।  কলম্বোতে ভারতীয় হাইকমিশন টুইট করে জানান সেকথা রেয়াতি ঋণ প্রকল্পের অধীনে আজ কলম্বোতে ভারত দ্বারা ডিজেলের একটি নতুন চালান সরবরাহ করা হয়েছিল।


 প্রধানমন্ত্রী বিক্রমাসিংহে বিশ্বব্যাংক এবং এডিবি প্রতিনিধিদের সাথে দেশের বর্তমান অর্থনৈতিক সংকট নিয়ে আলোচনা করেন এবং এই সময়ে ওষুধ, খাদ্য ও সার সরবরাহের বিষয়গুলিতে ফোকাস করেন।  একটি সরকারী বিবৃতি অনুসারে, প্রধানমন্ত্রী বলেছেন যে বৈঠক চলাকালীন, বিদেশী প্রতিনিধিদের সাথে আর্থিক সহায়তার জন্য একটি 'বিদেশী কনসোর্টিয়াম'  গঠনের বিষয়েও আলোচনা হয়েছে।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad