বৈশাখ পূর্ণিমা জেনে নিন এই উপবাসের গুরুত্ব - Breaking Bangla |breakingbangla.com | Only breaking | Breaking Bengali News Portal From Kolkata |

Breaking

Post Top Ad

Tuesday, 3 May 2022

বৈশাখ পূর্ণিমা জেনে নিন এই উপবাসের গুরুত্ব

 


প্রতি মাসের শেষ তারিখে পূর্ণিমা হয়।  হিন্দু ধর্মে পূর্ণিমা তিথির বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে।  বৈশাখ মাসে যে পূর্ণিমা আসে তা বৈশাখ পূর্ণিমা নামে পরিচিত।  এই দিনে ভগবান বিষ্ণুর পূজো করার নিয়ম আছে।  ভগবান বুদ্ধ এই দিনে জন্মগ্রহণ করেছিলেন, তাই বৈশাখ পূর্ণিমা বুদ্ধ পূর্ণিমা নামেও পরিচিত।  এ বছর বৈশাখ মাসের পূর্ণিমা পড়ছে ১৬ মে।


 ধর্মীয় গ্রন্থ অনুসারে, এই দিনে চন্দ্রের পূজো করলে ব্যক্তির কুণ্ডলীতে উপস্থিত চন্দ্র দোষ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।  শাস্ত্র মতে বৈশাখ মাস ভগবান বিষ্ণুর কাছে অত্যন্ত প্রিয়।  ব্রহ্মা বৈশাখ মাসকে হিন্দু মাসের মধ্যে শ্রেষ্ঠ বলে অভিহিত করেছেন।  বিশ্বাস করা হয় যে এই দিনে উপবাস ও উপাসনা করলে ভগবান বিষ্ণুর পাশাপাশি মৃত্যুর দেবতা যমরাজকেও প্রসন্ন করা যায়।


 যমরাজকে মৃত্যুর দেবতা মনে করা হয়।  তাদের খুশি করার জন্য বৈশাখ পূর্ণিমার দিনে উপবাস রাখা হয় এবং রীতি অনুযায়ী পূজো করা হয়।  এই সময়ে জলভর্তি ঘট, কুড়োল, পাখা, হাঁড়ি, ছাতা, ঘি, ক্যানটালপ, শসা, চিনি, শাক, চাল, লবণ দান করা শুভ। 


  এই দিনে অর্থ দান করলে মনে শান্তি পাওয়া যায় এবং এটি অত্যন্ত শুভ বলে মনে করা হয়।এটা বিশ্বাস করা হয় যে ভগবান বিষ্ণুর সাথে যমরাজের বরও প্রাপ্ত হয় এবং সে মৃত্যুকে জয় করে।


 বৈশাখ পূর্ণিমার তাৎপর্য:


 বৈশাখ পূর্ণিমার দিনে চাঁদের সঙ্গে ভগবান বিষ্ণুর পূজো করার বিধান রয়েছে।  এই দিনে শ্রী হরির আশীর্বাদ পেতে তাঁকে ভোগ নিবেদন করুন এবং পঞ্চামৃত নিবেদন করুন।


 বৈশাখ পূর্ণিমার দিনে গত এক মাস ধরে চলে আসা বৈশাখের স্নান সম্পন্ন হয়।


 বৈশাখ পূর্ণিমার দিনে নদী ও পুকুরে স্নানের নিয়ম রয়েছে।  এই দিনে স্নান ইত্যাদির পর দান করা হয়।  দানেরও একটি বিশেষ তাৎপর্য রয়েছে।


 এই দিনে যমরাজকে জল, থালা-বাসন ও মিষ্টি দিয়ে ভরা কলস নিবেদন করা গোদানের মতো ফল দেওয়ার সমতুল্য।


 এই দিনে চিনি ও তিল দান করতে হবে।  এতে করে ব্যক্তির অজান্তে কৃত পাপ বিনষ্ট হয়।  এই দিনে স্থির চিত্ত ও একাগ্র চিত্তে যমরাজের পূজো করা উচিৎ ।  এতে করে মৃত্যুকে জয় করা যায়।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad