নির্বাচনের আগেই আরও এক নির্বাচন উত্তরাখণ্ডে! কিন্তু কেন? - Breaking Bangla |breakingbangla.com | Only breaking | Breaking Bengali News Portal From Kolkata |

Breaking

Post Top Ad

Wednesday, 12 January 2022

নির্বাচনের আগেই আরও এক নির্বাচন উত্তরাখণ্ডে! কিন্তু কেন?


আচরণবিধি জারি হয়েছে, সব দল পুরোপুরি নির্বাচনী মোডে ঢুকে পড়েছে। 14 ফেব্রুয়ারি উত্তরাখণ্ডে ভোট হওয়ার কথা। কিন্তু 14 ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিতব্য ভোটের আগে, আজ কাশিপুরে আরেকটি ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়। এটি ছিল কাশিপুরের বিজেপির ভোট, যার মাধ্যমে সিদ্ধান্ত নিতে হবে তারা কাশিপুর বিধানসভা আসন থেকে তাদের প্রার্থী কাকে দেখতে চান।


আসলে, বিজেপি রাজ্য নেতৃত্বের নির্দেশে, রাজ্যের 70 টি বিধানসভায় পর্যবেক্ষক পাঠানো হচ্ছে। এই পর্যবেক্ষকরা ভোটের আকারে একটি ব্যালট বাক্সের ভিতরে তাদের মতামত নিচ্ছেন বিধানসভা অনুসারে নির্বাচিত বিজেপি পদাধিকারীদের কাছ থেকে। তাদের দেওয়া ব্যালট পেপারে প্রতিযোগীদের পছন্দ অনুযায়ী যথাক্রমে এক, দুই ও তিনজনের মাধ্যমে তাদের পছন্দের কথা জানাতে হবে।


আজ, বিজেপি রাজ্যের সহ-সভাপতি কৈলাশ শর্মা এবং অনগ্রসর জাতি কমিশনের সভাপতি কল্পনা সাইনির নির্দেশে, যিনি বিজেপি পর্যবেক্ষক হিসাবে কাশীপুরে এসেছিলেন, প্রায় শতাধিক বিজেপি কর্মকর্তা ভোট দিয়েছেন এবং ব্যালট বাক্সের মাধ্যমে তাদের মতামত দিয়েছেন। পর্যবেক্ষক কৈলাশ শর্মা জানান, এখানে ভোট দেওয়ার পর বন্ধ ব্যালট বাক্স রাজ্য নেতৃত্বের হাতে তুলে দেওয়া হবে। যাদের পক্ষে সর্বোচ্চ ভোট পড়বে, তাদের নাম প্যানেলের মাধ্যমে পাঠানো হবে।


অন্যদিকে, বিজেপির রাজ্য সহ-সভাপতি খিলেন্দ্র সিং-এর মতে, গোটা রাজ্যে এই প্রক্রিয়া চলছে। দলের সিনিয়র নেতাদের পর্যবেক্ষক হিসেবে বিধানসভাভিত্তিক দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। ভোটের আকারে মতামত নিয়ে সুপারভাইজার একটি প্যানেল তৈরি করে রাজ্য নেতৃত্বের হাতে তুলে দেবেন।


উল্লেখ্য, এদিন বিজেপির ভোট প্রক্রিয়া চলাকালীন, কাশীপুরের একটি স্কুলে বিজেপি বিধায়ক, মেয়র সহ বিপুল সংখ্যক কর্মী জড়ো হন। নীতি-নৈতিকতা থাকা সত্ত্বেও এই সময়ে যেখানে বিজেপিকে এক জায়গায় দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে, সেখানে প্রশাসন এই কর্মসূচি সম্পর্কে ধারণাও নিতে পারেনি।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad