KMC নির্বাচন ২০২১ সালে জয়ী তিনজন স্বতন্ত্র কাউন্সিলরকে তৃণমূল অন্তর্ভুক্ত করবে না - Breaking Bangla |breakingbangla.com | Only breaking | Breaking Bengali News Portal From Kolkata |

Breaking

Post Top Ad

Thursday, 23 December 2021

KMC নির্বাচন ২০২১ সালে জয়ী তিনজন স্বতন্ত্র কাউন্সিলরকে তৃণমূল অন্তর্ভুক্ত করবে না



তিনজন স্বতন্ত্র কাউন্সিলর গণনা কেন্দ্রে বিজয়ের শংসাপত্র নিয়ে তৃণমূলে যোগ দেওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেন, কিন্তু দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সাফ জানিয়ে দিয়েছেন তৃণমূলে তাদের জায়গা হবে না। নতুন বোর্ড গঠনের পর সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি স্পষ্ট করে বলেন বিজয়ী স্বতন্ত্র কাউন্সিলরদের এখনো অপেক্ষা করতে হবে।

তৃণমূল সূত্রে খবর তৃণমূলের প্রতীক নিয়ে লড়াই করা প্রার্থীদের লড়াই পছন্দ হয়নি সেই প্রার্থীদের। আর তাই সেই কাউন্সিলররা জয়ী হয়ে তৃণমূলে যোগ দিতে চাইলেও তৃণমূল এখন তাদের জন্য দলের দরজা খুলতে নারাজ। আর এই খবরে সিলমোহর দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেই “আমি চাই না যারা স্বতন্ত্র হিসেবে জিতেছে তারা এখনই দলে আসুক। তাদের অপেক্ষা করতে হবে।"

নবনির্বাচিত পুরবোর্ড কাউন্সিলরদের অভিনন্দন জানিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন “যারা পরাজিত হবেন তাদের অন্য কাজে ব্যবহার করা হবে। চল্লিশটি নতুন জিতেছে। সবাইকে ভালোভাবে কাজ করতে শিখতে হবে।”

তৃণমূল সূত্রে জানা গেছে এখন স্বতন্ত্র কাউন্সিলরদের দলে আমন্ত্রণ না করার কারণ হিসেবে দলীয় শৃঙ্খলা ও শৃঙ্খলার কথা বলা হচ্ছে। প্রসঙ্গত প্রবীণ নেতা সচ্চিদানন্দ বন্দ্যোপাধ্যায় এবং প্রয়াত নেতা সুব্রত মুখার্জির বোন তনিমা চট্টোপাধ্যায় সহ বেশ কয়েকজন তৃণমূল নেতা তৃণমূলের টিকিট পাননি এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে কলকাতা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন। সচ্চিদানন্দ ও তনিমা পরাজিত হলেও বাকি তিনজনই জিতেছে।‌

আয়েশা কোনিজ ৪৩ নম্বর ওয়ার্ডে, রুবিনা নাজ ১৩৫ নম্বর ওয়ার্ডে এবং পূর্বাশা নস্কর ১৪১ নম্বর ওয়ার্ডে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে জয়ী হয়েছেন। তারা দলীয় টিকিট না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন। নির্বাচনে জয়লাভের পর তারা দলের সঙ্গে যোগাযোগ শুরু করেন। তবে এখনই তাদের দলে অন্তর্ভুক্ত করা যাবে না বলে জানিয়েছে তৃণমূল নেতৃত্ব। সেই কারণেই বিজয়ী স্বতন্ত্র কাউন্সিলরদের মহারাষ্ট্র নিবাসে দলের আজকের বৈঠকে ডাকা হয়নি।

ইতিমধ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নবনির্বাচিত পুরবোর্ডের কাজের তালিকা ইতিমধ্যেই স্পষ্ট করেছেন। কাউন্সিলরদের উদ্দেশে তিনি বলেন “আজ থেকে এলাকা পরিষ্কার করা শুরু করুন। আজ থেকে সব ব্যানার হোর্ডিং সরিয়ে ফেলুন। এলাকাটি পরিষ্কার করা দরকার। রাস্তা ছেড়ে গেলে চারপাশে তাকান। আলো নেই, যেখানে পানি নেই সেখানে দেখাই তোমার কাজ। আপনি উপরে একটি পিচ রাখতে পারবেন না। সেবা পেতে লোকজনকে ঘুরতে হবে না। মানুষকে কষ্ট দেওয়া আপনার কাজ নয়। মনে রাখবেন জনগণের হিসাব রাখতে হবে।"

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad