এলপিজি সিলিন্ডার নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত সরকারের - Breaking Bangla |breakingbangla.com | Only breaking | Breaking Bengali News Portal From Kolkata |

Breaking

Post Top Ad

Wednesday, 8 December 2021

এলপিজি সিলিন্ডার নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত সরকারের



পেট্রোল ও ডিজেলের দাম কমার পরে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের আগে সরকার এলপিজি-র দামও কমাতে পারে বলে অনুমান করা হচ্ছিল। কিন্তু এখন পর্যন্ত এলপিজির দাম কমানো হয়নি। তবে এলপিজি গ্যাস সিলিন্ডারের ওজন নিয়ে সরকার শীগ্রই সিদ্ধান্ত নিতে পারে। মহিলাদের ১৪.২ কেজি গ্যাস সিলিন্ডার তুলতে এবং রাখতে সমস্যা হয়। এমন পরিস্থিতিতে সরকার এলপিজি গ্যাস সিলিন্ডারের ওজন কমানোর কথা ভাবছে শীগ্রই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে।

পেট্রোলিয়াম এবং প্রাকৃতিক গ্যাস মন্ত্রী হরদীপ সিং পুরি সংসদে এলপিজি গ্যাস সিলিন্ডার ভারী হওয়ার সমস্যা উল্লেখ করার পরে জবাবে বলেছিলেন যে আমরা চাই না যে মহিলারা কোনও ধরণের অসুবিধার মুখোমুখি হন। এমন পরিস্থিতিতে ভারী সিলিন্ডারের সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। এর জন্য বাজারে ১৪.২ কেজি সিলিন্ডার সহ ৫ কেজি সিলিন্ডার চালু করতে হলেও নারীদের সুবিধার্থে দ্রুততম সময়ে একটি বিকল্প অনুসন্ধান করা হবে।

আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের আগে সরকার ব্যবসায়ীদের ধাক্কা দিয়ে অতীতে এলপিজি বাণিজ্যিক সিলিন্ডারে ১০০ টাকা বাড়িয়েছে। এর আগেও বাণিজ্যিক সিলিন্ডারে ২৬৬ টাকা বাড়ানো হয়েছিল যেখানে ১লা ডিসেম্বর আবার ১০০ টাকা বাড়ানো হয়েছে। আগে ১৯ কেজির একটি বাণিজ্যিক সিলিন্ডার ২০৯৩ টাকায় পাওয়া যেত এখন ১৯ কেজির বাণিজ্যিক সিলিন্ডার পেতে ২১৯৩.৫০ টাকা দিতে হবে।

এর আগে ১লা জানুয়ারী ২০২১-এ বাণিজ্যিক সিলিন্ডারের দাম বাড়ানো হয়েছিল তারপরে সিলিন্ডারের দাম ছিল ২০৯৩ টাকা।একই সময়ে সিলিন্ডারে আবার ১০০ টাকা বাড়ানো হয়েছে। আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের আগে উত্তরপ্রদেশের জনগণ আশা করেছিল যে সরকার সিলিন্ডারের দাম কমিয়ে দেবে, মুদ্রাস্ফীতিতে স্বস্তি দেবে, কিন্তু অন্যদিকে সরকার বাণিজ্যিক সিলিন্ডারের দাম ১০০টাকা বাড়িয়েছে। তবে এখনও ঘরোয়া সিলিন্ডারের দাম বাড়ানো হয়নি।

গার্হস্থ্য সিলিন্ডারের বিষয়ে এখনও আশা রয়েছে সম্ভবত পেট্রোল এবং ডিজেলের মতো আগামী দিনে দেশীয় সিলিন্ডারের দাম কমবে। অতীতে পেট্রোল এবং ডিজেলের ক্রমবর্ধমান দামের বিরুদ্ধে প্রতিবাদের পরে কেন্দ্রীয় সরকার ডিজেল এবং পেট্রোলের উপর আবগারি শুল্ক কমিয়েছিল যার পরে উত্তরপ্রদেশেও পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম কমানো হয়েছিল। সরকার পেট্রোল এবং ডিজেল উভয়ের জন্য ১২ টাকা করে ত্রাণ দিয়েছে।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad