খেজুরের উপকারিতা - Breaking Bangla |breakingbangla.com | Only breaking | Breaking Bengali News Portal From Kolkata |

Breaking

Post Top Ad

Wednesday, 8 December 2021

খেজুরের উপকারিতা

 


খেজুরগুলিতে উপস্থিত ফাইবার আপনার হৃদয়কে শক্তিশালী এবং স্বাস্থ্যকর করে তোলে। একই সাথে এতে উপস্থিত পটাসিয়াম হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি হ্রাস করে। আপনার পাচনতন্ত্রকে পরিষ্কার করতে ডেট ফাইবার ব্যবহার করা হয়। আপনি ক্ষুধার্ত থাকলে খেজুর খেতে পারেন তবে নির্দিষ্ট সময়ে খেজুর খাওয়া আপনাকে অনেক স্বাস্থ্য উপকার দিতে পারে।



প্রাতঃরাশের সময় যদি আপনি আপনার ডায়েটে প্রাকৃতিক মিষ্টি এবং ফাইবার যুক্ত করতে চান তবে খেজুর ব্যবহার করুন। এর উচ্চ ফাইবার সামগ্রী আপনাকে সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত পূর্ণ অনুভব করে। এটি আপনার খাবারের বৃহত্তর অনুপাতকেও ভারসাম্য করে। এর কার্বহাইড্রেট, প্রোটিন এবং ফ্যাট রচনা আপনার পেটের পক্ষে উপকারী।


খেজুরগুলি ফাইবারের একটি ভাল উৎস এবং বিকেলে স্ন্যাক্সগুলিতে মিষ্টি। এই জোড়া ফাইবার এবং চিনি রক্তে শর্করাকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে সহায়তা করে। আপনি যখন ক্ষুধার্ত হন, খেজুর খাওয়ার ফলে আপনার দেহের ক্যালোরিগুলি ভারসাম্যহীন থাকে।




রাতের খাবার হিসাবে

খেজুরগুলিতে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার থাকার কারণে , অনেকে এটি নাইট স্ন্যাক হিসাবে গ্রহণ করেন। ফাইবার হজম হতে আরও বেশি সময় নেয়, যা আপনাকে পুরো বোধ করতে এবং মধ্যরাতের ক্ষুধা দমন করতে সহায়তা করতে পারে। এ ছাড়া রাতে যদি মিষ্টি খেতে খেতে সমস্যা নিয়ে চিন্তিত হন তবে খেজুর খান।



খেজুর কখন খাবেন না?

১. আপনার যদি অন্ত্র সিন্ড্রোম (আইবিএস) থাকে তবে আপনার এটি খাওয়া এড়ানো উচিৎ। আইবিএস আক্রান্ত ব্যক্তিরা এফডএমএপি সহ খাবারের প্রতি সংবেদনশীল হতে পারে যা খেজুরের মতো ছোট-চেইন কার্বস হজম করে না।


২. দুর্বল লিভারের লোকদের খুব বেশি খেজুর খাওয়া উচিৎ নয় কারণ এটি ফ্রুকটোজের একটি গুরুত্বপূর্ণ উৎস, যা পেট নষ্ট করতে পারে।


৩. খাওয়ার পরে খেজুর খাওয়া এড়িয়ে চলুন কারণ এতে ফাইবার বেশি থাকে, যা হজম হতে বেশি সময় নেয়। ফলস্বরূপ, অতিরিক্ত খাওয়ার পরে প্রচুর খেজুর খাওয়া আপনাকে খুব পরিপূর্ণ এবং অস্বস্তি বোধ করতে পারে।


৪. খেজুর সব অর্থে শরীরের জন্য উপকারী তবে আপনার যদি অ্যালার্জি হয় তবে আপনার খেজুর খাওয়া এড়ানো উচিৎ। খেজুর খাওয়ার পরে যদি আপনার মনে হয় চুলকানি বা ফুসকুড়ি লেগে যায় তবে কেবলমাত্র ডাক্তারের পরামর্শে খেজুর নিন।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad