বলিউড অভিনেতা রাজকুমারের মতো তালেবানদের হুমকি দিতে দেখা গেল বাইডেনকে - Breaking Bangla |breakingbangla.com | Only breaking | Breaking Bengali News Portal From Kolkata |

Breaking

Post Top Ad

Sunday, 29 August 2021

বলিউড অভিনেতা রাজকুমারের মতো তালেবানদের হুমকি দিতে দেখা গেল বাইডেনকে




নিউজ ডেস্ক : কাবুল বিমানবন্দরে হামলা চালানো আইএসআইএস-খোরাসান ষড়যন্ত্রকারীদের হত্যা করেছে বলে দাবি করেছে যুক্তরাষ্ট্র।  কিন্তু, এর সঙ্গে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের তুলনা হচ্ছে ভারতের বিখ্যাত চলচ্চিত্র অভিনেতা রাজ কাপুরের সঙ্গে।  সোশ্যাল মিডিয়ায় জো বাইডেনের বক্তব্য বেশ ভাইরাল হচ্ছে, যাতে তাকে সন্ত্রাসীদের হুমকি দিতে দেখা যায়।


প্রকৃতপক্ষে, আইএসআইএস-খোরাসান সন্ত্রাসীরা কাবুল বিমানবন্দরে একটি অত্যন্ত বিপজ্জনক আত্মঘাতী হামলা চালিয়েছিল। যার ফলে ২০০ জনেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছে।  যেখানে ১৩ জন আমেরিকান সৈন্যও মারা যায়।  এই আত্মঘাতী হামলার পর আমেরিকা চারদিকে সমালোচিত হয় এবং বলা হয় যে আমেরিকা তার সৈন্যদের মৃত্যুর পরেও চুপ করে আছে।  মানুষ বলতে শুরু করেছে যে একটা সময় ছিল, যদি একজন আমেরিকানকে পৃথিবীর যে কোনও প্রান্তে হত্যা করা হত,তাহলে আমেরিকা সে দেশের জীবনকে কঠিন করে দিত। কিন্তু এখন পরিস্থিতি এমন এসেছে যে সন্ত্রাসীরা আমেরিকান সৈন্যদের হত্যা করছে এবং আমেরিকার বাইডেন প্রশাসন তা দেখছে না।  সব সমালোচনার পরে, জো বাইডেনের একটি ক্ষুব্ধ ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে, যেখানে তিনি সন্ত্রাসীদের কাছ থেকে প্রতিশোধ নেওয়ার কথা বলছেন।


ছত্তিশগড়ের আইএএস অফিসার অবিনাশ শরণ তাঁর ট্যুইটার অ্যাকাউন্টে একটি ভিডিও ক্লিপ শেয়ার করেছেন এবং তিনি লিখেছেন, 'বাইডেন' - এর উপর 'রাজকুমার'কে কপি করার অভিযোগ।  এই ভিডিও ক্লিপে জো বাইডেনের ভাষণ, যেখানে তিনি সন্ত্রাসীদের হুমকি দিচ্ছেন।  ভিডিওতে, জো বাইডেনকে সন্ত্রাসীদের বলতে দেখা যাচ্ছে যে 'আমরা আপনাদের হত্যা করব, আমরা জায়গাটি নির্ধারণ করব এবং আমরা সময়ও নির্ধারণ করব'।  


জো বাইডেনের এই বক্তব্যের পর মানুষ সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রতিক্রিয়া জানাতে শুরু করে এবং লোকেরা রাজকুমারের সেই বিখ্যাত ডায়লগগুলি স্মরণ করতে শুরু করে।যেখানে অভিনেতা রাজকুমার সওদাগর সিনেমার সময় দিলীপ কুমারকে বলেছিলেন।  রাজকুমার ছবিতে বলেছিলেন, 'আমরা আপনাকে মেরে ফেলব, এবং আমরা অবশ্যই আপনাকে হত্যা করব, কিন্তু সেই বন্দুকটিও আমাদের হবে, গুলিটাও আমাদের হবে এবং সময়টাও আমাদের হবে'।


মার্কিন কেন্দ্রীয় কমান্ডের একজন মুখপাত্র বলেন, আমরা আফগানিস্তানের নাঙ্গার প্রদেশে একটি মানহীন বিমান হামলা চালিয়েছি।  যা ইসলামিক স্টেটের শক্ত ঘাঁটি হিসেবে বিবেচিত।  প্রাথমিক ইঙ্গিত হল যে আমরা লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত পেয়েছি এবং ষড়যন্ত্রকারীদের হত্যা করা হয়েছে, যখন কোন বেসামরিক হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।  বার্তা সংস্থা এএফপি পেন্টাগনের বরাত দিয়ে মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এই খবর নিশ্চিত করেছে যে, আফগানিস্তানে ইসলামিক স্টেটের 'পরিকল্পনাকারীদের' বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্র ড্রোন হামলা চালিয়েছে।  যুক্তরাষ্ট্র সব নাগরিককে কাবুল বিমানবন্দরের গেট এবং গেটগুলি যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ছেড়ে দিতে বলেছে।


কাবুল বিমানবন্দরে সন্ত্রাসী হামলার পর মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছিলেন যে আমরা এই হামলা ভুলে যাব না, আমরা সেই সন্ত্রাসীদের খুঁজে বের করে হত্যা করব।  তারা অবশ্যই তাদের কর্মের জন্য শাস্তি পাবে।  আফগানিস্তানে আইএসআইএসের শক্ত ঘাঁটিতে শনিবার (২৮ আগস্ট) যুক্তরাষ্ট্রের বিমান হামলার মাধ্যমে আমেরিকা তার প্রতিশোধ শুরু করেছে।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad