মোদীর হাত ধরেই বাংলার কি সংস্কৃতির পুনঃপ্রতিষ্ঠা? - Breaking Bangla |breakingbangla.com | Only breaking | Breaking Bengali News Portal From Kolkata |

Post Top Ad

Tuesday, 9 February 2021

মোদীর হাত ধরেই বাংলার কি সংস্কৃতির পুনঃপ্রতিষ্ঠা?

 

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা,৯ ফেব্রুয়ারি :-“মোদীর হাত ধরেই বাংলার সংস্কৃতির পুনঃপ্রতিষ্ঠা হবে। মোদীর হাট ধরে শ্যামা প্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের স্বপ্ন সফল হবে”। মঙ্গলবার দুপুরে তারাপীঠ সংলগ্ন চিলে সেতুর মাঠে সভা থেকে একথা বলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নেড্ডা।

 এদিন নির্দিষ্ট সময়ের বেশ কিছুটা দেরিতে তারাপীঠ থানার তারাপুর সরস্বতী শিশু বিদ্যামন্দির মাঠে নামে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার হেলিকপ্টার। সেখান থেকে তিনি চলে যান তারাপীঠ মন্দিরে। সেখানে মা তারার পুজো দিয়ে চিলে সেতুর মাঠের সভা মঞ্চে উপস্থিত হন। সেখানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্য সভাপতি দিলিপ ঘোষ, কৈলাস বিজয়বর্গি, মধ্যপ্রদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নরোত্তম মিশ্র, মুকুল রায়, রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় সহ অনেকে। সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে নাড্ডা বলেন, “যত দিন যাচ্ছে বাংলার সংস্কৃতিকে নষ্ট করা হচ্ছে। আগে বলা হত ‘বাংলা যা আজ ভাবে, অন্যরা ভাবে পরের দিন’। কিন্তু এই সরকার বাংলার সুনাম নষ্ট করছে। আমার নামের সঙ্গে আরও দু-তিনটে নাম জুড়ে দিয়ে বক্তব্য রাখছেন মুখ্যমন্ত্রী। দিন কয়েক আগে ভাইপো শুভেন্দু সম্পর্কে যে ভাষা প্রয়োগ করেছে তা মুখে আনতে পারছি না। তৃণমূলের নেতা নেত্রীদের ভাষা শুনে আমার দুঃখ হচ্ছে। এরা মানুষকে সম্মান দিতে জানে না। অনেক হয়েছে মমতা। এবার পরিবর্তন চাইছে জনতা। প্রধানমন্ত্রী মোদীর হাত ধরে বাংলা বদলাবে। স্বচ্ছ প্রকল্প নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বাংলায় আসেন। ৮৫০০ কোটি টাকা ব্যয়ে ইষ্ট ওয়েস্ট মেট্রোর কাজ চলছে”। তিনি সরকারের দুর্নীতি প্রসঙ্গে বলেন, “বাংলায় সব কিছুতেই রাজনীতি। আম্ফানের টাকা ছুরি করেছে সরকার। করোনার সময় সরকার চাল, ডাল পাঠিয়েছিল সরকার। কিন্তু সেই চাল ডাল মানুষের কাছে পৌঁছয়নি। ওই চাল ডাল তৃণমূল নেতাদের বাড়িতে পৌঁছে যায়”। নাড্ডা বলেন, “এই সরকার নকলের সরকার। প্রধানমন্ত্রী আবাস জজনার নাম দিয়েছে বাংলা আবাস যোজনা, স্বচ্ছভারত অভিজানের নাম দেওয়া হয়েছে নির্মল বাংলা। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রীর মনটা নির্মল নয়। বলে রাখি প্রকল্পের নাম বদলে কিছু হবে না। কারন বাংলার মানুষের মন থেকে মোদীর নাম বদলাতে পারবেন না”। ধর্ষণে এই রাজ্য প্রথম বলে দাবি করেন নাড্ডা। বলেন, “ধর্ষণে বাংলা প্রথম। বিশেষ করে চা বাগানে আদিবাসীদের উপর এই ধর্ষণের মাত্রা বাড়ছে। এই সরকারের জন্য রাজ্যের কৃষকরা কৃষি ভাতা পাচ্ছেন না। তবে আমরা ক্ষমতায় আসার পর বিধানসভায় প্রথম যে সভা হবে ওই দিনই বাংলার ৭৪ লক্ষ কৃষককে ১৮ হাজার করে ভাতা দেওয়া হবে। ক্ষমতায় এলে আয়ুষ্মান ভারতে যুক্ত করা হবে মানুষকে”।

No comments:

Post a comment

Post Top Ad