সুপারস্টার শাহরুখ খানের কিছু অজানা কথা - Breaking Bangla |breakingbangla.com | Only breaking | Breaking Bengali News Portal From Kolkata |

Breaking

Post Top Ad

Friday, 26 August 2022

সুপারস্টার শাহরুখ খানের কিছু অজানা কথা


২রা নভেম্বর ১৯৬৫ সালে জন্মগ্রহণ করেন বলিউড অভিনেতা শাহরুখ খান ১৯৮৯ সালে টিভি শো ফৌজি দিয়ে তার ক্যারিয়ার শুরু করেন। এরপর থেকে তিনি আর পেছনে ফিরে তাকাননি। বিশ্বজুড়ে অনুরাগীদের মধ্যে কিং অফ রোম্যান্স, বাদশাহ এবং কিং খান নামে পরিচিত শাহরুখ খান বহু বছর ধরে মুম্বাইতে বসবাস করছেন কিন্তু স্পষ্টতই তাঁর হৃদয় দিল্লিতে রয়েছে যেখানে তিনি সেন্ট কলম্বাস-এ পড়াশোনা করেছেন। অভিনেতা তার স্কুলে পড়ার সময় সবসময় একজন ভাল ছাত্র ছিলেন।


তার ১২ তম শ্রেণী শেষ করার পরে তিনি বিএ অনার্স ডিগ্রী অর্জন করার সিদ্ধান্ত নেন এবং দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের হংসরাজ কলেজে ভর্তি হন। তিনি কলেজে অর্থনীতির ছাত্র ছিলেন কিন্তু শেষ পর্যন্ত তিনি ২৮ বছর পর ২০১৬ সালে স্নাতক ডিগ্রী লাভ করেন। স্নাতক শেষ করার পর তিনি মাস্টার্স করার জন্য দিল্লির জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছিলেন। তবে কিছু ব্যক্তিগত কারণে তিনি স্নাতকোত্তর ডিগ্রি সম্পন্ন করতে পারেননি।


তার বাবা তাজ মোহাম্মদ খান ছিলেন একজন ব্যবসায়ী। তার মায়ের নাম লতিফ ফাতিমা খান এবং বোনের নাম শাহনাজ লালা রুখ। দিল্লির একটি অল্প বয়স্ক ছেলে এসআরকে তার সাফল্য এবং বৃদ্ধির সাক্ষী হওয়ার আগেই তার বাবা-মা দুজনকেই হারিয়েছিল।


শাহরুখ খানের স্ত্রী গৌরী খান একজন ইন্টেরিয়র ডিজাইনার। তাদের ১৯৯১ সালের অক্টোবরে বিয়ে হয়।শাহরুখ খান এবং তার স্ত্রীর তিনটি সন্তান রয়েছে  আরিয়ান খান, সুহানা খান এবং আবরাম খান। স্বদেশ অভিনেতার রেড চিলিস এন্টারটেইনমেন্ট নামে একটি প্রযোজনা সংস্থাও রয়েছে৷


তিন দশকেরও বেশি সময় হয়ে গেল গ্ল্যামার জগতে বাস করছেন শাহরুখ খান।  ভারতের পাশাপাশি বিদেশেও তার প্রচুর ফ্যান ফলোয়িং রয়েছে। ৩০ বছর আগে দিওয়ানা ছবির মাধ্যমে বলিউডে আত্মপ্রকাশ করেছিলেন এসআরকে। কিছু সময় আগে তিনি আর মাধবনের সঙ্গে রকেট্রি ছবিতে অভিনয় করেছিলেন।  যদিও তাকে কিং অফ রোম্যান্স বলা হয় ডর ছবিতে তার অভিনয় করা নেতিবাচক চরিত্রটি তার সেরা অভিনয়গুলির মধ্যে একটি। কাজলের সঙ্গে তার জুটি প্রচুর ভালবাসা পেয়েছে যার সঙ্গে তিনি বাজিগর, কুছ কুছ হোতা হ্যায়, মাই নেম ইজ খান ইত্যাদি সহ প্রায় ১৪ টি চলচ্চিত্র করেছেন।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad