সমুদ্রে খুব শীঘ্রই অবতরণ করবে, এই শক্তিশালী সাবমেরিন আইএনএস ভাগ্শির - Breaking Bangla |breakingbangla.com | Only breaking | Breaking Bengali News Portal From Kolkata |

Breaking

Post Top Ad

Friday, 15 April 2022

সমুদ্রে খুব শীঘ্রই অবতরণ করবে, এই শক্তিশালী সাবমেরিন আইএনএস ভাগ্শির

 


 এখন সমুদ্রে ভারতীয় নৌবাহিনীর সঙ্গে শত্রুদের টক্কর দেওয়া সহজ হবে না।  শীঘ্রই ভারতীয় নৌবাহিনীর পরিষেবায় যুক্ত হতে চলেছে আরও একটি সাবমেরিন।


 সামুদ্রিক সীমান্ত রক্ষা করতে INS Vagsheer সাবমেরিন শীঘ্রই ভারতীয় নৌবাহিনীর অংশ হয়ে উঠবে।  প্রজেক্ট-৭৫-এর অধীনে ষষ্ঠ সাবমেরিন শীঘ্রই ভারতীয় পরিষেবায় প্রবেশ করবে।


    এই সাবমেরিন ভারতীয় নৌবাহিনীর শক্তি বাড়াবে।আইএনএস ভাগ্শির  সাবমেরিন ২০এপ্রিল চালু হবে।  এই সাবমেরিনের নির্মাণকাজ শেষ হয়েছে।  এই সাবমেরিনে ভারতীয় তৈরি যন্ত্রপাতির প্রায় ৪০ শতাংশ বসানো হয়েছে।


 আইএনএস ভাগ্শির ২০ এপ্রিল চালু হওয়ার পরে ১২ মাসের জন্য সমুদ্র পরীক্ষা করবে, তারপরে এটি ভারতীয় নৌবাহিনীতে প্রবেশ করবে।


 আসুন জেনে নেওয়া যাক আইএনএস ভাগ্শির -এর বৈশিষ্ট্যগুলি কী কী?


 আইএনএস ভাগ্শির এর বৈশিষ্ট্য:


এই সাবমেরিন স্করপিন যানটি একটি কালভারী শ্রেণীর ডিজেল-ইলেকট্রিক সাবমেরিন এটি।


 আইএনএস ভাগ্শির অত্যাধুনিক নেভিগেশন, ট্র্যাকিং সিস্টেমে সজ্জিত


 অনেক ধরনের অস্ত্রও এতে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে যাতে শত্রু দেশের চাল বৃথা যায়।


  কম আওয়াজে শত্রুকে সহজে বিভ্রান্ত করার ক্ষমতা সহ ১৮টি টর্পেডো বহন করার ক্ষমতা আইএনএস ভাগ্শিরের রয়েছে।


 একই সাথে শত্রুপক্ষের দিকে ছয়টি টর্পেডো নিক্ষেপ করা যাবে।


এছাড়াও জাহাজ বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র সাবমেরিনের বিশেষত্ব।  এই সাবমেরিনটি ৫০ দিন জলে থাকতে পারে।


 সাবমেরিন আইএনএস ভাগ্শির অভ্যন্তরীণ প্রযুক্তি একটি ফরাসি এবং একটি স্প্যানিশ সংস্থা অধিগ্রহণ করেছে।  যদিও নির্মাণ করা হয়েছে ভারতীয় রীতিতে। 


প্রজেক্ট-৭৫-এর অধীনে ভারতের নিরাপত্তার জন্য এখনও পর্যন্ত ৫টি অত্যাধুনিক সাবমেরিন মোতায়েন করা হয়েছে।  ভারতের যুদ্ধ সক্ষমতা বাড়াতে এটাই এই সিরিজের শেষ সাবমেরিন।  এটি অত্যাধুনিক প্রযুক্তি এবং সক্ষমতা দিয়েও সজ্জিত।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad