শসার উপকারিতা - Breaking Bangla |breakingbangla.com | Only breaking | Breaking Bengali News Portal From Kolkata |

Breaking

Post Top Ad

Saturday, 13 November 2021

শসার উপকারিতা



 শসা প্রায়শই লোকেরা সালাদ আকারে খায়।  প্রতিদিন এর সেবনে খাবারের স্বাদ দ্বিগুণ বেড়ে যায়।  কিন্তু সেই সঙ্গে আপনাদের জানিয়ে রাখি যে শসার সেবন শুধুমাত্র স্বাদ বাড়াতেই ব্যবহৃত হয় না, এর সেবন শরীরের অনেক উপকারও করে।  প্রতিদিন এটি খেলে শরীরে জলের অভাব পূরণ হয়।  অন্যদিকে, শসার উপকারিতা সম্পর্কে বলতে গেলে, এটি ভিটামিন এবং খনিজ সমৃদ্ধ।  এর সেবন শরীরকে হাইড্রেটেড রাখতে সাহায্য করে।  যদি আপনার শরীরে জলের অভাব হয়, তাহলে এমন পরিস্থিতিতে শসা খুবই উপকারী হতে পারে।  অতএব, এটি আপনার দৈনন্দিন খাদ্যতালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা আবশ্যক।  আসুন জেনে নিই খাদ্যতালিকায় শসা রাখলে কী কী উপকার পাওয়া যায়।




 হাড় শক্ত হয়

 আপনি যদি আপনার প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় শসা অন্তর্ভুক্ত করেন তবে এটি হাড়কে অনেকাংশে মজবুত করতে পারে।  শসার খোসায় প্রচুর পরিমাণে সিলিকা নামক উপাদান পাওয়া যায়।  সিলিকা উপাদান হাড় মজবুত রাখতে সহায়ক।  একই সময়ে, এটি ক্যালসিয়ামে সমৃদ্ধ, যা হাড়ের স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত উপকারী প্রমাণিত হয়।  অন্যদিকে, আপনি যদি এটি সকালে পান করেন তবে এটি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বাড়ায়।  তাই শসা খেতে ভুলবেন না।  তাই শসা খেতে ভুলবেন না।  যাতে আপনার হাড় মজবুত থাকে একই সাথে এটি আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে শক্তিশালী রাখতে সাহায্য করে।




 ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করবে

 শসার উপকারিতা সম্পর্কে বলতে গেলে, এটি শুধু স্বাদেই ভালো নয়, এটি ডায়াবেটিস রোগীর রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণেও সাহায্য করে।  শসা সুগার রোগীর রক্তে উপস্থিত চিনি শোষণ করার পাশাপাশি চিনির পরিপাক প্রক্রিয়াকে ধীর করতেও সহায়ক।  অতএব, আপনি যদি সুগারের রোগী হন তবে আপনি ডায়েটে শসা অন্তর্ভুক্ত করতে পারেন।  শসা খাওয়া রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা অনেকাংশে শক্তিশালী রাখতে সহায়ক।  অন্যদিকে, আপনি যদি ডায়াবেটিসের মতো রোগে ভুগছেন, তবে বেশি বেশি করে শসা খেলে আপনার উপকার হতে পারে।



 শক্তিশালী করে

 রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা: আপনিও যদি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা শক্তিশালী রাখতে চান, তাহলে শসা খাওয়া খুবই উপকারী।  শসার মধ্যে অনেক ধরনের উপাদান পাওয়া যায় যেমন ভিটামিন সি, বিটা ক্যারোটিন, অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ইত্যাদি। প্রতিদিন এর ব্যবহার শরীরে উপস্থিত ফ্রি র‌্যাডিক্যাল দূর করে।  এবং একই সাথে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা শক্তিশালী করে।  তাই, যদি আপনার হজম প্রক্রিয়ায় কোনো সমস্যা থাকে যেমন বদহজম, পেটে ব্যথা, পেটে গ্যাস, তাহলে অবশ্যই শসা খেতে পারেন।




 ত্বক এবং চুলের বৃদ্ধির জন্য প্রতিদিন শসা খাওয়া চুল এবং ত্বক উভয়ের স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী।  আপনি যদি আরও উপকার করতে চান তবে আপনি পালং শাক বা বাথুয়ার রসের সাথে মিশিয়েও শসার রস খেতে পারেন।  এটি চুলের বৃদ্ধিতে সাহায্য করবে।  আর ত্বকে আনবে উজ্জ্বলতা।  অন্যদিকে, আপনি যদি ব্রণের মতো সমস্যায় ভুগে থাকেন, তাহলে এমন পরিস্থিতিতে ফেসপ্যাক হিসেবে শসা ব্যবহার করতে পারেন।  এটি ব্রণের সমস্যা কমাতে সাহায্য করবে এবং একই সঙ্গে ব্রণের দাগও দূর করবে।  তাই শসা ব্যবহার করতে পারেন।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad