এবার ধনেপাতা করবে চিকনগুনিয়া ও ডেঙ্গু রোগের মোকাবিলা - Breaking Bangla |breakingbangla.com | Only breaking | Breaking Bengali News Portal From Kolkata |

Breaking

Post Top Ad

Monday, 11 October 2021

এবার ধনেপাতা করবে চিকনগুনিয়া ও ডেঙ্গু রোগের মোকাবিলা



 নিউজ ডেস্ক : ধনেপাতার মধ্যে অনেক ঔষুধি গুণ লুকিয়ে আছে, যা ডেঙ্গু আর চিকনগুনিয়া রোগে খুবই কার্যকর।

 ধনে পাতা প্রায় প্রতিটি বাড়িতে পাওয়া যায়। কেউ কেউ ধনে পাতাকে শুকনো করে তার মশলা হিসাবেও ব্যবহার করে।     

শুকনো ধনে পাতা মশলা হিসেবে বেশি ব্যবহৃত হয় আর সবুজ ধনে পাতা ডাল, চাটনি বা সব্জি তে রেখে ব্যবহার করা হয়। ধনে পাতা রান্নাতে ব্যবহার করলে এর স্বাদ বেড়ে যায়।


  এর কী কী উপকারিতা এবং কোন রোগের চিকিৎসার জন্য এটি ব্যবহার করা যেতে পারে, আসুন জেনে নেওয়া যাক


  ডায়রিয়া হলে, ৫০ গ্রাম তাজা ধনে পাতা দুধের সর বা ঠান্ডা জলে মিশিয়ে দিনে দুবার পান করলে, ডায়রিয়া থেকে দারুণ উপশম পাওয়া যায়।


 এটি মুখের ক্ষত সারাতেও খুব কার্যকর। এতে উপস্থিত অ্যান্টি সেপটিক প্রপার্টি মুখের ক্ষত দ্রুত নিরাময়ে কাজ করে।


 প্রস্রাবে বেশি হলুদভাব দেখা দিলে, ২ চা চামচ শুকনো ও সতেজ ধনে পাতা পিষে ১ গ্লাস জলে মিশিয়ে ৫ মিনিট ফুটিয়ে, ছেঁকে, ঠাণ্ডা করে,সকাল এবং সন্ধ্যায় পান করলে, প্রস্রাব পরিষ্কার হয়ে যায়।


 ধনে থেকে তৈরি তেল লাগিয়ে ম্যাসাজ করলে বাত ও ব্যথা উপশম হয়। সর্ষের তেলে শুকনো ধনে পাতা ৫ মিনিট গরম করে নিতে হবে। এরপর ঐ তেল ঠান্ডা করে ম্যাসাজ করলে আরাম পাওয়া যায়।


 অতিরিক্ত ঋতুস্রাবে সেদ্ধ করা ধনে বীজের জল খাওয়া উচিৎ। এটি ঋতুস্রাব নিয়ন্ত্রণ করে। ধনেতে উপস্থিত আয়রন রক্তের ঘাটতি পূরণে সাহায্য করে। এটি শরীরে শক্তির মাত্রাও উন্নত করে।


 জেনে রাখা ভালো, ধনেতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এ এবং সি পাওয়া যায়, যা আমাদের দেহে রোগের বিরুদ্ধে লড়াই করার শক্তি তৈরি করে। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে চাইলে, নিয়মিত ধনে খাওয়া উচিৎ।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad