প্রধানমন্ত্রী মোদি আফগানিস্তানের পরিস্থিতি নিয়ে অন্যান্য মন্ত্রীদের নিয়ে বসলেন বড় বৈঠকে - Breaking Bangla |breakingbangla.com | Only breaking | Breaking Bengali News Portal From Kolkata |

Breaking

Post Top Ad

Tuesday, 7 September 2021

প্রধানমন্ত্রী মোদি আফগানিস্তানের পরিস্থিতি নিয়ে অন্যান্য মন্ত্রীদের নিয়ে বসলেন বড় বৈঠকে




নিউজ ডেস্ক : আফগানিস্তানের পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী মোদী সোমবার একটি বৈঠক করেছেন।  এই বৈঠকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং, জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল এবং সিডিএস জেনারেল বিপিন রাওয়াত উপস্থিত ছিলেন।  প্রধানমন্ত্রী মোদী এই সময়ে বৈঠক করেছেন যখন তালেবান দাবি করেছে যে তারা পাঞ্জশিরও দখল করেছে। পাঞ্জশিরে অবশ্য তালেবান প্রতিদ্বন্দ্বী আহমেদ শাহ মাসুদের ছেলে আহমদ মাসুদ দাবিগুলোকে অস্বীকার করে দিয়েছেন।  আহমদ মাসুদ বলেছেন, লড়াই এখনও চলছে।


মুজাহিদ বলেন, "আমরা পাঞ্জশিরের সম্মানিত বাসিন্দাদের আশ্বস্ত করি যে, তারা কোনওভাবেই বৈষম্যের শিকার হবে না, সবাই আমাদের ভাই এবং আমরা সবাই দেশের সেবা এবং সাধারণ স্বার্থের জন্য কাজ করব।"  ১৫ আগস্ট, তালেবানরা পাঞ্জশির বাদে সমগ্র আফগানিস্তান দখল করে নেয়।  তালেবান জঙ্গিদের কাবুলের দিকে অগ্রসর হতে দেখে প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি দেশ ত্যাগ করেন।


এর পর তালেবানরা পাঞ্জশিরের দিকে মুখ করে।  এখানে তালেবান এবং আহমদ মাসুদের নেতৃত্বাধীন জাতীয় প্রতিরোধ ফ্রন্ট (এনআরএফ) যোদ্ধাদের মধ্যে দ্বন্দ্ব বেড়ে যায়।  তালেবানের বেশ কয়েকটি প্রতিনিধি দল সেখানে কয়েকজন বিশিষ্ট নেতার সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করেছিল, কিন্তু সব প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছিল।  রবিবার সংঘর্ষে তালেবান বিরোধী গোষ্ঠীর মুখপাত্র ফাহিম দাশতিও মারা যান।  পাঞ্জশিরের তালেবান বিরোধী যোদ্ধাদের নেতৃত্ব দিচ্ছেন প্রাক্তন ভাইস প্রেসিডেন্ট আমরুল্লাহ সালেহ।


আফগানিস্তানে নতুন তালেবান সরকার হতে পারে সংগঠনের সহ-প্রতিষ্ঠাতা মোল্লা আবদুল গনি বড়দার।  তালেবান ১৫ আগস্ট কাবুল দখলের পর দ্বিতীয়বারের মতো কাবুলে নতুন সরকার গঠনের ঘোষণা স্থগিত করেছে।  শুধু তাই নয়, তালেবানের শীর্ষ ধর্মীয় নেতা মোল্লা হেবাতুল্লাহ আখুনজাদা হবেন আফগানিস্তানের সর্বোচ্চ নেতা।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad