জেনেনিন কলিযুগের কুম্ভকর্ণকে - Breaking Bangla |breakingbangla.com | Only breaking | Breaking Bengali News Portal From Kolkata |

Breaking

Post Top Ad

Friday, 16 July 2021

জেনেনিন কলিযুগের কুম্ভকর্ণকে




 নিউজ ডেস্ক: আমরা সবাই  রামায়ণ চরিত্র  'কুম্ভকর্ণ' যিনি বছরে ছয় মাস ঘুমতে পারত তার সাথে পরিচিত। তবে বাস্তবের 'কুম্ভকর্ণ' রাজস্থানের নাগৌড় জেলায় বছরে ৩০০দিন ঘুমানোর জন্য নজর কেড়েছে! 

আখিস হাইপারসোমনিয়া নামে পরিচিত বিরল ঘুমন্ত ব্যাধিতে ভুগছেন রাজস্থানের পুরখারাম নামে ৪২ বছর বয়সী এক ব্যক্তি। সাধারণ মানুষ দিনে ছয় থেকে আট ঘন্টা বা নয় ঘন্টা ঘুমায়।পুরখারাম একবারে ২০-২৫ দিন ঘুমাতে পারে।

 চিকিৎসার সমীক্ষা অনুসারে, এক্সএন হাইপারসমনিয়া মস্তিষ্কের টিএনএফ-আলফা নামক প্রোটিনের ওঠানামা ফলে হয়। প্রায় ২৩ বছর আগে,পুরখারাম প্রথম এই বিরল রোগের সঙ্গে পরিচিত হয়েছিল এবং তার পরে এই রোগ তাঁর জীবনযাত্রার পাশাপাশি সুস্বাস্থ্যের উপরও প্রভাব ফেলেছে। 

জানা গেছে একবার সে ঘুমোলে তার পক্ষে জেগে ওঠা মুশকিল হয়ে যায়।  প্রকৃতপক্ষে, তার পরিবারের সদস্যরাই তার প্রতিদিনের কাজগুলি সম্পাদন করেন। যেমন তিনি যখন ঘুমোন তখন তাকে খাওয়ানো এবং গোসল করা সহ।

 তার রোগের কারণে তিনি মাসে পাঁচ দিন তার গ্রামে একটি ছোট মুদি দোকান চালান।  এমনকি তিনি দোকানে বসে থাকার সময় এবং কাজের সময়ও ঘুমিয়ে পড়েন বলে তার পরিবারের লোক জানিয়েছে। 

আগে প্রাথমিক দিনগুলিতে পুরখারাম দিনে ১৫ ঘন্টা ঘুমাতেন তাই দেখে তার পরিবার চিকিৎসার সহায়তা চেয়েছিল।তবে তার রোগ নিরাময় সম্ভব হয়নি। ২০১৫ সালের মধ্যে তার ঘুম ক্রমশ বাড়তে থাকে এবং তার ঘুমের সময়কাল কয়েক ঘন্টা থেকে  বেশ কয়েক দিন বেড়ে যায়।

পুরখারাম বলেছিলেন যে তিনি বেশিরভাগ সময় ক্লান্ত থাকেন এবং তাঁর কাজ করার ক্ষমতা শূন্য থাকে। ওষুধ এবং অতিরিক্ত ঘুমানো সত্ত্বেও তার মাথা ব্যথা রয়েছে। তবে  পুরখারামের স্ত্রী লিচমি দেবী এবং তাঁর মা কানভারী দেবী আশা করছেন যে তিনি শীঘ্রই সুস্থ হয়ে উঠবেন এবং আগের মতোই স্বাভাবিক জীবনযাপন শুরু করবেন।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad