করোনা আবহে শক্তি বাড়াচ্ছে আইএসআইএস, চিন্তায় মোদী সরকার - Breaking Bangla |breakingbangla.com | Only breaking | Breaking Bengali News Portal From Kolkata |

Breaking

Post Top Ad

Monday, 19 July 2021

করোনা আবহে শক্তি বাড়াচ্ছে আইএসআইএস, চিন্তায় মোদী সরকার





নিউজ ডেস্ক: করোনায় কাবু ভারতকে নিয়ে খুশি আইএসআইএসএস। কয়েক মাস আগে, যখন দেশটি করোনাভাইরাস মোকাবেলা করতে লড়াই চালাচ্ছিল এবং কোভিড -১৯ আক্রান্তের সংখ্যা ধারাবাহিকভাবে বাড়ছিল, তখন সন্ত্রাসী সংগঠনগুলি খুশিতে উতসব উদযাপন করছিল।এই রোগের কারণে ভারতের মানুষ মারা যাওয়ায় সন্ত্রাসীরা খুব খুশি হয়েছিল । গোয়েন্দা সংস্থাগুলি আইএসআইএস সন্ত্রাসীদের সেই গোপন তথ্য পেয়েছিল।



উল্লেখ্য, এপ্রিল-মে মাসে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে ভারতে কোভিড -১৯ সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়েছিল। যার কারণে দেশের অনেক রাজ্যের পরিস্থিতি আরও খারাপ হয়েছিল।


গোয়েন্দা সংস্থাগুলির দাবি, ঠিক ওই সময়ে  আইএসআইএস দ্রুত কাশ্মীরে তার কার্যক্রম বাড়িয়ে তুলছিল এবং কাশ্মীরের যুবকদের তাদের সংগঠনে যোগ দেওয়ার জন্য ব্রেইন ওয়াশ করার লক্ষ্য নিয়ে গত কয়েকমাস ধরে ভারতের বিরুদ্ধে নানা ধরণের ভিডিও নিজেদের নেটওয়ার্কের মাধ্যমে তা শেয়ার করেছিল।




১১ জুলাই জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা এনআইএ জম্মু ও কাশ্মীরের অনন্তনাগে অভিযান চালিয়ে আইএসআইএসের একটি মডিউল খুঁজে পায়। এনআইএ-র অভিযান এবং পরবর্তী তদন্তে জানা যায়, কাশ্মীরসহ সারাদেশে যুবকদের ব্রেইন ওয়াশ করতে এবং তাদেরকে আইএসআইএস-এ যোগ দেওয়ার জন্য একটি অনলাইন ম্যাগাজিন প্রকাশ করে।

এনআইএ র হাতে গ্রেফতার হওয়া সন্ত্রাসীর কাছ থেকে আইসিসের লোগো সহ অনেকগুলি দেশ বিরোধী নথি, ডিজিটাল সরঞ্জাম এবং টি-শার্টও উদ্ধার হয়েছিল।


সুরক্ষা সংস্থাগুলির সূত্রমতে, বিশ্ব যখন কোভিড -১৯ এর সাথে লড়াই করার জন্য ব্যস্ত ছিল  তখন আইএসআইএসের সন্ত্রাসীরা তাদের সংগঠনকে আরও শক্তিশালী করার জন্য এই সুযোগটি কাজে লাগায়। শুধু তাই নয়, আইএসআইএস সন্ত্রাসবাদী গোষ্ঠীতে জড়িত তার কমরেডদেরও ইন্টারনেট ব্যবহারের সময় কীভাবে সুরক্ষা সংস্থাগুলির রাডার এড়াতে হবে তা শিখিয়ে দিয়েছে।




গত বছর প্রকাশিত 'দ্য সাপোর্টারস সিকিউরিটি' নামে একটি সাইবার সিকিউরিটি ম্যাগাজিন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সাবধানতা অবলম্বন করার বিষয়ে জানিয়েছিল, যাতে সুরক্ষা সংস্থাগুলি এড়ানো যায়। 24-পৃষ্ঠার এই ম্যাগাজিনে, স্মার্টফোন এবং কম্পিউটার ব্যবহার করার সময় কীভাবে সতর্কতা অবলম্বন করা উচিত তাও বলা হয়েছিল।


সুরক্ষা সংস্থাগুলির এই রিপোর্টের পর থেকে সন্ত্রাসী সংগঠনের অনলাইন কার্যক্রম নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। সাইবার সুরক্ষা পর্যবেক্ষণ করা আধিকারীকদের মতে, সোশ্যাল মিডিয়ায় সক্রিয় কিছু বার্তা দেওয়া হয়েছে, যারা পাকিস্তান থেকে এসেছেন এবং তারা ভারতের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালানোর চেষ্টা করছেন।


গত বছরের শুরুর দিকে, বাংলাদেশে সক্রিয় আল কায়দাও একটি ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ভারতে লোন ওল্ফের আক্রমণ সম্পর্কে সতর্ক করেছিল। আল-কায়েদা হিন্দু সংগঠন এবং ভারত সরকারের শীর্ষ আধিকারিকদের উপর আক্রমণের হুমকি দিয়েছে।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad