ঘরোয়া উপায়ে নিয়ন্ত্রণ করুন থাইরয়েড - Breaking Bangla |breakingbangla.com | Only breaking | Breaking Bengali News Portal From Kolkata |

Breaking

Post Top Ad

Tuesday, 6 July 2021

ঘরোয়া উপায়ে নিয়ন্ত্রণ করুন থাইরয়েড

 



 নিউজ ডেস্ক : থাইরয়েড এমন একটি লাইফস্টাইল ডিজিজ, যাতে মহিলারা সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হন। থাইরয়েড হ'ল একটি হরমোন যা তৈরি করে একটি প্রজাপতি আকৃতির গ্রন্থি। এটি ঘাড়ের ভিতরে থাকে। শরীরে আয়োডিন, সেলেনিয়াম এবং জিঙ্কের অভাবে থাইরয়েডের সমস্যা দেখা দেয়। এই তিনটি উপাদানই শরীরকে সুস্থ রাখতে খুব গুরুত্বপূর্ণ। এ ছাড়া ওষুধের অতিরিক্ত ব্যবহারের কারণে হাই বিপি বা লো বিপি থাকায় থাইরয়েড সমস্যা হতে পারে।


থাইরয়েডের লক্ষণ:


এই রোগের লক্ষণগুলি নিয়ে কথা বলা, হাত কাঁপা, তাপ সহ্য করতে না করা, সঠিকভাবে ঘুম না হওয়া, হার্টের ধড়ফড়ানি, তৃষ্ণা এবং শরীরে দুর্বলতার অনুভূতি অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। আপনি যদি নিজের মধ্যেও এ জাতীয় লক্ষণগুলি অনুভব করেন তবে আপনার ডায়েটে এমন জিনিস অন্তর্ভুক্ত করুন যা আপনার থাইরয়েডকে নিয়ন্ত্রণে রাখবে।


হলুদের দুধ সর্বোত্তম প্রতিকার: 


থাইরয়েড রোগীদের প্রতিদিন হলুদ দুধ খাওয়া উচিৎ। থাইরয়েডের চিকিৎসায় হলুদ খুব কার্যকর।


অশ্বগন্ধা ব্যবহার করুন:


শোবার সময় এক চামচ অশ্বগন্ধা গুঁড়ো দুধের সাথে নিন। আপনি চাইলে জলে সিদ্ধ করে এটি গ্রহণ  করতে পারেন। এটি হরমোনের ভারসাম্যহীনতা দূর করে।


মুলেথি:


প্রধান উপাদানগুলির ট্রাইটারপেইনয়েড গ্লাইসিরেটিনিক অ্যাসিড অ্যালকোহলিতে পাওয়া যায়, যা থাইরয়েড রোগীদের জন্য সেরা।


তুলসী গ্রহণ করুন:


অনাক্রম্যতা বাড়ানোর পাশাপাশি তুলসীও থাইরয়েডের চিকিৎসা করবে। যদি আপনি আধা চা চামচ অ্যালোভেরার রস ২ চা চামচ তুলসীর রস পান করেন তবে থাইরয়েডকে অনেকাংশে চিকিৎসা করা যেতে পারে।


থাইরয়েড নিয়ন্ত্রণ করবে এমন খাবারগুলি:


ডায়েটে করলা অন্তর্ভুক্ত করুন:


থাইরয়েড রোগীদের জন্য  করলা খাওয়া সেরা বিকল্প। থাইরয়েড রোগীদের খালি পেটে করলার জুস খাওয়া উচিৎ। করলা খাওয়া স্ট্রেস হ্রাস করে, এতে আরও বেশি জল থাকে যা শরীরকে শীতল রাখতে সহায়তা করে। ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য বোতলজাত করলার ব্যবহারও খুব উপকারী বলে বিবেচিত হয় ।


গোল মরিচ:


গোলমরিচ থাইরয়েড রোগীদের জন্য সেরা চিকিৎসা। নিয়মিত খাবারে অল্প পরিমাণে গোলমরিচ খেতে পারেন। এটিতে থাকা অ্যান্টি-ডিপ্রেশন বৈশিষ্ট্য যা মানুষের মানসিক চাপ এবং হতাশা থেকে মুক্তি পেতে সাহায্য করে। হাড়ের ব্যথা এটি সেবন করে মুছে ফেলা যায়।


নারকেল তেল:


নারকেল তেল স্বাস্থ্যের জন্য অনেক উপকারী। এই তেল ডায়াবেটিসের মতো রোগে ওজন হ্রাস থেকে মুক্তিও দেয়। থাইরয়েড রোগীদের রান্না তেল আকারে নারকেল তেল খাওয়া উচিৎ।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad