প্রকাশ পাড়ুকোন ১৯৭৮ সালে আন্তর্জাতিক ক্রীড়াক্ষেত্রে পা রাখেন। সে বছরই কানাডায় অনুষ্ঠিত কমনওয়েলথ গেমসে সোনা জয় করেন মেন্স সিঙ্গলসে - Breaking Bangla |breakingbangla.com | Only breaking | Breaking Bengali News Portal From Kolkata |

Breaking

Post Top Ad

Thursday, 10 June 2021

প্রকাশ পাড়ুকোন ১৯৭৮ সালে আন্তর্জাতিক ক্রীড়াক্ষেত্রে পা রাখেন। সে বছরই কানাডায় অনুষ্ঠিত কমনওয়েলথ গেমসে সোনা জয় করেন মেন্স সিঙ্গলসে

  


ভারতীয়  ক্রীড়াজগতের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র তিনি। মার্জিত, সুভদ্র ও সুদর্শন এই ক্রীড়াবিদ তাঁর ক্রীড়ানৈপুন্যে স্বপ্রকাশিত হয়ে দেশকে গৌরবান্বিত করেছেন। তিনি ভারতের সর্বকালের সেরা ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড়– প্রকাশ পাড়ুকোন।


প্রকাশ কর্ণাটকের উদুপি জেলার পাড়ুকোন গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। গ্রামের নামই তাঁদের পারিবারিক পদবি । মাতৃভাষা কোঙ্কনি। বাবা রমেশ পাড়ুকোন মাইসোর ব্যাডমিন্টন এসোসিয়েশন-এর সেক্রেটারি ছিলেন। সেই সূত্রেই প্রকাশের ব্যাডমিন্টন জগতে প্রবেশ।




মাত্র সাত বছর বয়সে কর্ণাটক স্টেট জুনিয়র চ্যাম্পিয়নশিপে অংশগ্রহণ করেন। ন’বছর বয়সেই স্টেট জুনিয়র চ্যাম্পিয়ন হন। ১৯৭২ সালে একই সঙ্গে ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল জুনিয়র এবং সিনিয়র টাইটেল জয় করেন। তিনি পরপর তিনি আটবার জাতীয় চ্যাম্পিয়নশীপ লাভ করেন।


প্রকাশ ১৯৭৮ সালে আন্তর্জাতিক ক্রীড়াক্ষেত্রে পা রাখেন। সেই বছরই কানাডায় অনুষ্ঠিত কমনওয়েলথ গেমসে সোনা জয় করেন মেন্স সিঙ্গলসে। ১৯৭৯ সালে লন্ডনে Evening of Champions খেতাব জয় করেন।




১৯৮০ সালে ড্যানিশ ও সুইডিশ ওপেন ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়নশিপ জয় করেন। প্রথম ভারতীয় হিসাবে তিনি ১৯৮০ সালে All England Championship (Men’s Single) জয় করেন। ১৯৮১ সালে কুয়ালালামপুরে অনুষ্ঠিত ওয়ার্ল্ড কাপ ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়ন হন। এছাড়া ১৯৭৪ সালে তেহরান এশিয়ান গেমস ও ১৯৮৬ সালে সিওল এশিয়ান গেমসে দলগত বিভাগে ব্রোঞ্জ পদক পান।


১৯৮১ সালে ওয়ার্ল্ড গেমসে এবং ১৯৮৩ সালে ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপে ব্রোঞ্জ পদক লাভ করেন।


১৯৯১ সালে খেলার জগৎ থেকে অবসর গ্রহণ করেন প্রকাশ পাড়ুকোন। Badminton Associon Of India-র চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। 

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad