স্থূলত্ব থেকে ডিপ্রেশন সমস্যায় বহুল কার্যকর এই অনুশীলনটি! - Breaking Bangla |breakingbangla.com | Only breaking | Breaking Bengali News Portal From Kolkata |

Breaking

Post Top Ad

Saturday, 19 June 2021

স্থূলত্ব থেকে ডিপ্রেশন সমস্যায় বহুল কার্যকর এই অনুশীলনটি!

 



 : যোগব্যক্তি কেবল শরীরকেই সুস্থ রাখে না সাথে তারা তাদের মনকেও সতেজ রাখে। দিনজুড়ে ২০-৩০ মিনিটের জন্য যোগব্যায়াম আপনাকে সারা দিন জুড়ে সতেজ রাখে। এই খবরে আমরা আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি নটরাজাসনের সুবিধা । এটি একটি উপকারী যোগ ভঙ্গি, যা হিন্দু দেবতা শিবের নামানুসারে রাখা হয়েছে। এটি বিশ্বাস করা হয় যে নটরাজ ভঙ্গি শিবের প্রিয় যোগ ভঙ্গি। এর রূপটি নটরাজ রূপে ভগবান শিবের দেওয়া নৃত্য ভঙ্গির মাধ্যমে ব্যাখ্যা করা হয়েছে।


নটরাজাসনে আপনাকে শরীরকে এক পায়ে ভারসাম্য বজায় রাখতে হবে যা প্রথম দিকে আপনার পক্ষে বেশ চ্যালেঞ্জ হতে পারে এবং আপনি যখন এই চ্যালেঞ্জটি কাটিয়ে উঠবেন, তখন আপনি শান্তির উপলব্ধি অর্জন করতে পারেন। এই আসন আপনার পেশী শক্তিশালী করতেও সহায়তা করে। 


নটরাজাসন করার পদ্ধতি :


সবার আগে বৃক্ষসনের ভঙ্গিতে দাঁড়ান।


এখন শ্বাস নেওয়ার সময়, আপনার শরীরের ওজন বাম পাতে স্থানান্তর করুন এবং ডান পাটি পিছনের দিকে তুলুন।


আপনার ডান পা যতটা সম্ভব ওঠানোর চেষ্টা করুন।


আপনার পা সঠিকভাবে সুষম হয় তা নিশ্চিত করতে বাম পা, উরু, নিতম্বের উপর চাপ প্রয়োগ করুন ।


আপনার ডান হাতটি আপনার ডান হাতের গোড়ালি স্পর্শ করার চেষ্টা করুন।


আপনার সামনে সরাসরি আপনার বাম হাত প্রসারিত করুন।


সাধারণত শ্বাস নিন এবং প্রায় ২০-৩০ সেকেন্ডের জন্য এই ভঙ্গিতে থাকুন।


এখন আবার শুরুর অবস্থানে ফিরে আসুন।


এর পরে এই আসনটি অন্য পা দিয়েও পুনরাবৃত্তি করুন।


আপনি যদি স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন তবে আপনি এটি ৩-৪ বার চেষ্টা করে দেখতে পারেন।


নটরাজাসনের উপকারিতা :


নটরাজ আসন করলে দেহ চাপ ও উদ্বেগ থেকে দূরে থাকে।


আপনি যদি এই আসনটি নিয়মিত করেন তবে পা শক্ত হওয়ার পাশাপাশি বুক, কাঁধ এবং উরুর পেশীও শক্ত থাকে।


আপনি যদি ওজন হ্রাস করতে বা পেটের চর্বি হ্রাস করতে চান তবে নটরাজ আসনার সাহায্যে এটি সম্ভব হতে পারে।


যেসব লোকের হজম ব্যবস্থা ভাল না থাকে বা পেটের সমস্যা রয়েছে তারা এই আসনটি করে তাদের হজমতন্ত্রকে স্বাস্থ্যকর করে তুলতে পারেন।


এই যোগাসন অনুশীলন আপনার ঘনত্ব বৃদ্ধি করে।


নটরাজাসনের সুবিধার মধ্যে রয়েছে স্ট্রেস হ্রাস এবং মনের শান্তি।


এই সাবধানতা অবলম্বন করুন :


মাথা ঘোরা, মাথাব্যথা ইত্যাদির মতো যে কোনও মানসিক সমস্যা রয়েছে, তাদেরও এই আসন করা এড়ানো উচিৎ।


আপনার শরীরে যদি সার্জারি বা কোনও ধরণের অপারেশন হয়ে থাকে তবে এই আসনটি এড়িয়ে চলুন।


যাঁরা পিঠে ব্যথা বা ঘাড়ে কোনও ধরণের আঘাত পেয়ে সমস্যায় পড়েছেন, তাঁদের এই আসন করা উচিৎ নয়।


হাঁটুর ব্যথা থাকলেও এই আসনটি করবেন না।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad