আম খাওয়া শরীরে কী উপকার করে জেনে নিন - Breaking Bangla |breakingbangla.com | Only breaking | Breaking Bengali News Portal From Kolkata |

Breaking

Post Top Ad

Thursday, 17 June 2021

আম খাওয়া শরীরে কী উপকার করে জেনে নিন

 





 আম গ্রীষ্মের মরসুমে খাওয়া হয়।  এই ফলের ইতিহাসটি প্রায় ৫০০০ বছরের পুরানো।  তবে আমের স্বাদ এখন সাত সমুদ্রের ওপারে বিদেশিরা বেছে নিয়েছে।  দশরি, ল্যাংড়া, চৌসা, কেশার, বাদামি, তোতাপাড়ি এবং আলফোনসোর মতো আমের প্রজাতিগুলি ভারতে বেশ বিখ্যাত।  বিশেষজ্ঞরা বলছেন যে আমের পুষ্টিকর পাশাপাশি সুস্বাদু।  আসুন জেনে নিন আমে কোন উপকারী উপাদান পাওয়া যায় এবং কীভাবে এটি আমাদের দেহে উপকার করে।


 আমে বিভিন্ন ধরণের ভিটামিন, খনিজ এবং অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট পাওয়া যায় ল।  এতে উপস্থিত ভিটামিন কে কেবল রক্ত ​​জমাট বাঁধার ক্ষেত্রেই উপকারী নয়, রক্তাল্পতা প্রতিরোধ করে।  খুব কম লোকই জানতে পারে যে আম আমাদের হাড়কে মজবুত করতেও কাজ করে।


 আম এছাড়াও ভিটামিন সি সমৃদ্ধ, যা রক্তনালী এবং স্বাস্থ্যকর কোলাজেন বিকাশের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হিসাবে বিবেচিত হয়।  ভিটামিন সি শরীরের ক্ষতগুলি দ্রুত নিরাময় করতে সহায়তা করে।  এ ছাড়া আম আমাদের দেহকে অনেক বড় বড় রোগ থেকে রক্ষা করতে পারে।


 হার্টের স্বাস্থ্য- চিকিৎসকদের মতে, আম আমাদের দেহের কার্ডিওভাসকুলার সিস্টেমকেও সমর্থন করে।  এতে উপস্থিত প্রচুর পরিমাণে ম্যাগনেসিয়াম এবং পটাশিয়াম এছাড়াও নিয়মিত নাড়ির সাথে শরীরে নিম্ন রক্তচাপকে সংযুক্ত করে ।  এটি ছাড়াও আমের মধ্যে ম্যাঙ্গিফেরিন নামে একটি যৌগ থাকে।  অনেক প্রাথমিক গবেষণায় দেখা গেছে যে ম্যাঙ্গিফেরিন হার্টের প্রদাহ দূর করতেও কাজ করে।


আমও আমাদের পাচনতন্ত্রকে স্থিতিশীল রাখে।  এতে উপস্থিত অ্যামাইলেস যৌগ এবং ডায়েটারি ফাইবার কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতেও কাজ করে।  অ্যামিলাস যৌগগুলি আমাদের পেটকে বিভিন্ন ধরণের খাবার হজম করতে সহায়তা করে এবং কঠোর স্টারচিও ভেঙে দিতে পারে।  আম থেকে প্রাপ্ত ফাইবার কোষ্ঠকাঠিন্যের ক্ষেত্রে পরিপূরকগুলিতে উপস্থিত ফাইবারের চেয়ে বেশি কার্যকর।


 চোখের উপকার- আম ভিটামিন এ ও সমৃদ্ধ।  ভিটামিন এ এর ​​দৈনিক প্রয়োজনের প্রায় ২৫ শতাংশ পর্যন্ত একটি আম পূরণ করতে পারে।  এই ভিটামিনটি আমাদের দেহের অনেক বড় অঙ্গ যেমন চোখ এবং ত্বকের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ।  


 ওজন নিয়ন্ত্রণ - আমের উপস্থিত উপকারী উপাদানগুলি দ্রুত বর্ধমান ওজন নিয়ন্ত্রণেও উপকার পেতে পারে।  সাম্প্রতিক এক গবেষণায় দেখা গেছে, আমে এবং এতে উপস্থিত ফাইটোকেমিক্যালগুলি দেহে ফ্যাটযুক্ত কোষ এবং জিনগুলিতে চাপ দিতে পারে।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad